২২ বছর পর বঙ্গ ক্রিকেটার হিসেবে রঞ্জিতে ত্রিপল টন মনোজের!

সাজিদা জেসমিন »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

শুরুটা করেছিলেন দেবাং গান্ধী, ১৯৯৮ সালে। বর্তমানে প্রাক্তন এ-ই খেলোয়াড় আছেন ভারতীয় নির্বাচক কমিটিতে। ৩২৩ রানের সেই ইনিংসে সেদিন বঙ্গীয় ক্রিকেটারদের শির উঁচু করেছিলেন রঞ্জিতে। ২২বছর পর আবার দীর্ঘ অপেক্ষার অবসান ঘটালেন মনোজ তিওয়ারি। নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি করলেন তিনি।

২০ জানুয়ারি,সোমবার হায়দারাবাদের বিরুদ্ধে অপরাজিত ৩০৩ রানের ইনিংস খেলে এ-ই রেকর্ড করেন মনোজ। সমালোচকদের জবাব ব্যাটে-বলেই দিয়েছেন এমনটাই মন্তব্য প্রাক্তন এ-ই অধিনায়কের। চোখে স্বপ্ন জাতীয় দলের জার্সি গায়ে মাঠে ফেরার।

খেলা শেষে গণমাধ্যমে বলেন – ‘ভিরাটের দলে জায়গা পাওয়া কঠিন, তবে একেবারেই অসম্ভব না।ধারাবাহিকতা বজায় থাকলে সুযোগ আসবে। আমার কাজ ধারাবাহিকভাবে পারফরম্যান্স করা।’

গতি বছরে ইডেনে মনোজের অভিযোগেই বাংলার ড্রেসিংরুম থেকে বের করা হয়েছিলো দেবাং গান্ধীকে। নতুন বছরে সেই দেবাংয়ের রেকর্ড স্পর্শ করলেন মনোজ। দেবাংয়ের ৩২৩ রানের রেকর্ড ভাঙার সুযোগ ছিলো এমন প্রশ্নের উত্তরে মনোজ বলেন – ‘সুযোগ আরো আসবে। খেলার সময় রেকর্ডের কথা মাথায় আসেনি। দলের সিদ্ধান্তমতে ম্যাচ ডিক্লেয়ার করা হয়েছে। ‘

নিজের ক্যারিয়ারের প্রথম ট্রিপল সেঞ্চুরি ছেলেকে উৎসর্গ করতে চান মনোজ। ছেলের নাম লেখা ব্যাটেই এসেছে এ-ই রেকর্ড। মজার ব্যাপার হলো স্কোরবোর্ডে মনোজের ইনিংসের রান লেখা হয়নি। মনোজের অনুরোধেই নাকি এমনটি হয়েছে। চাপ নিতে চাননি তিনি।

এর আগে ১৯জানুয়ারি(রবিবার) সেঞ্চুরি করে পঙ্কজ রায়ের ২১ সেঞ্চুরির রেকর্ড ভেঙে, স্পর্শ করেন অরুণলালের রঞ্জিতে ২২ টি সেঞ্চুরি করার রেকর্ড। শুরুর দিকে রান ক্ষরায় ভুগেছেন। ট্রিপল সেঞ্চুরি করে আত্নবিশ্বাস ফিরে পেয়েছেন মনোজ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »