স্বপ্নের প্রথম টেস্ট জয়ের ১৭ বছর আজ-

নিউজ ক্রিকেট ২৪ ডেস্ক »

আজ বাংলাদেশ ক্রিকেটের জন্য এক অবিস্মরণীয় দিন। আজ থেকে ১৭ বছর আগে ঠিক এইদিনে সাদা পোশাকে ইতিহাস রচনা করেছিল বাংলাদেশ জাতীয় ক্রিকেট দল। ২০০৫ সালের ১০ই জানুয়ারি চট্রগ্রামের এম.এ আজিজ স্টেডিয়ামে সফরকারী জিম্বাবুয়েকে ঘরের মাঠে ২২৬ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে প্রথমবারের মতো টেস্ট জয়ের স্বাদ পায় হাবিবুল বাশারের নেতৃত্বে বাংলাদেশ দল।

২০০০ সালে টেস্ট স্টেটাস লাভ করে বাংলাদেশ। নিজেদের টেস্ট মর্যাদা পাওয়ার প্রায় ৫ বছরের পর, জয় নামক সোনার হরিণের দেখা পায় টাইগাররা।নিজেদের টেস্ট ইতিহাসে প্রথম জয়ের স্বাদ নিতে টাইগারদের অপেক্ষা করতে হয়েছে ২২ ম্যাচ!

টেস্ট মর্যাদা লাভের পর প্রথম টানা ২১ ম্যাচ হারে বৃত্তে ঘুরপাক খেয়েছে বাংলাদেশ ক্রিকেট। নিজেদের টেস্ট ইতিহাসের ২২তম ম্যাচে চট্টগ্রামের এম এ আজিজ স্টেডিয়ামে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টসে জিতে ব্যাটিংয়ের সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ। টসে জিতে আগে ব্যাট করতে নেমে উদ্বোধনী জুটিতে দলকে দারুণ সূচনা এনে দেন দুই ওপেনার জাভেদ ওমর বেলিম ও নাফিস ইকবাল। উদ্বোধনী জুটিতে দুজনের ব্যাট থেকে আসে ৯১ রান। দুজনের উদ্বোধনী ৯১ রানের ওই জুটি শক্ত ভিত্তি তৈরি করে দিয়েছিল দলকে। পরবর্তীতে তাদের দেখানো পথে হেটে ধারাবাহীক ভাবে ব্যাট হাতে রান তুলছে বাকিরাও। প্রথম ইনিংসে ব্যাট হাতে নাফিস ইকবাল ৫৬, হাবিবুল বাশার ৯৪, রাজিন সালেহ ৮৯ ও মোহাম্মদ রফিকের ব্যাট থেকে আসে ৬৯ রান। অল্পের জন্য অর্ধশতক ফসকে গিয়েছিল খালেদ মাসুদ (৪৯) ও মাশরাফি বিন মুর্তজার (৪৮)। একাধিক ব্যাটসম্যানের অর্ধশতকের কল্যানে, প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের সংগ্রহ গিয়ে দাঁড়ায় ১৪৯.৩ ওভারে ৪৮৮ রান। জবাবে জিম্বাবুয়ের প্রথম ইনিংস শেষ হয় ৩১২ রানে। বাংলাদেশের পক্ষে প্রথম ইনিংসে বল হাতে মোহাম্মদ রফিকের শিকার ৫ উইকেট। এছাড়া মাশরাফি ৩টি ও তাপস বোশ্য নেন এক উইকেট। যার ফলে প্রথম ইনিংসে ১৭৬ রানের বিশাল লিড পায় টাইগাররা।

১৭৬ রানের লিড নিয়ে দ্বিতীয় ইনিংসে ৯ উইকেটে ২০৪ রান তুলতেই ইনিংস ঘোষণা করে বাংলাদেশ অধিনায়ক হাবিবুল বাশার। ব্যাট হাতে দ্বিতীয় ইনিংসেও বাজিমাত করেন কাপ্তান হাবিবুল বাশার। দ্বিতীয় ইনিংসেও অধিনায়কের ব্যাট থেকে আসে ৫৫ রানের দারুণ একটি ইনিংস। ২০৪ রানে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস ঘোষনার পর, জিম্বাবুয়ের জন্য জয়ের লক্ষ্যমাত্রা গিয়ে দাঁড়ায় ৩৮১। ৩৮১ রানের জয়ের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে, দ্বিতীয় ইনিংসে এনামুল হক জুনিয়ারের বিধ্বংসী স্পিন ঘূর্ণিতে ১৫৫ রানেই গুটিয়ে যায় জিম্বাবুয়ে। যার ফলে ২২৬ রানের বিশাল ব্যবধানে জিম্বাবুয়েকে বিধ্বস্ত করে নিজেদের টেস্ট ইতিহাসে প্রথম জয় পায় লাল সবুজের প্রতিনিধিরা। এই ম্যাচে দ্বিতীয় ইনিংসে মাত্র ৪৫ রান খরচায় ৬ উইকেট তুলে নিয়ে জিম্বাবুয়ের মেরুদণ্ড ভেঙ্গে দিয়েছিল স্পিনার এনামুল হক জুনিয়র।

উল্লেখ্য জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে এই দারুণ জয় সারাদেশে সেদিন নিয়ে এসেছিল আনন্দের জোয়ার।রেডিও টেলিভিশনে বাংলাদেশের প্রথম টেস্ট জয়ের খবর ছড়িয়ে পড়তেই উল্লাসে ফেটে পড়ে পুরো দেশ। বাংলাদেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের কাছে দিনটি হয়ে গেল শ্রদ্ধা আর অহংকারের।আজ ১০ই জানুয়ারি ২০২১ সালে গৌরবময় প্রথম টেস্ট জয়ের ১৭ বছর পূর্তি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:
বাংলাদেশ (১ম ইনিংস): ৪৮৮-১০
হাবিবুল বাশার ৯৪, রাজিন সালেহ ৮৯, মোহাম্মদ রফিক ৬৯, নাফিজ ইকবাল ৫৬, খালেদ মাসুদ ৪৯, মাশরাফি ৪৮

জিম্বাবুয়ে (১ম ইনিংস): ৩১২-১০
টেটান্ডা তাইবু ৯২, এল্টন চিকাম্বুরা ৭১
মোহাম্মদ রফিক: ৪১.৪-১৯-৬৫-৫

বাংলাদেশ (দ্বিতীয় ইনিংস): ২০৪-৯ (ডিক্লেয়ার)
হাবিবুল বাশার ৫৫, রাজিন সালেহ ২৬

জিম্বাবুয়ে (দ্বিতীয় ইনিংস): ১৫৪-১০
এনামুল হক জুনিয়র: ২২.২-৫-৪৫-৬

ফলাফল: বাংলাদেশ ২২৬ রানে জয়ী।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »