সেমিতে বাংলাদেশের সামনে কেমন প্রতিপক্ষ!

কে এম আবু হুরায়রা »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

চ্যাম্পিয়ন হওয়ার লক্ষ্যেই সাউথ আফ্রিকায় পাড়ি জমিয়েছিল বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল। বেশ ফর্মেও আছে বাংলাদেশের যুবারা। নিজেদের আধিপত্য ধরে রেখে এখন তারা ট্রফি থেকে দু কদম পিছিয়ে মাত্র। বিশ্বকাপের শুরু থেকেই নিজেদের আধিপত্য বিস্তার করেই খেলছেন টাইগাররা। এ সুবাদে গ্রুপ চ্যাম্পিয়ন হয়েই শেষ চার নিশ্চিত করেছিলো টাইগাররা।

তবে আফসোস ছিলো কখনই খেলা হয়নি পুরো ৫০ ওভার৷ নিজেদের ধৈর্য আর শক্তিমত্তাকে ঝালাই করারও কোন সুযোগ ছিলোনা। সর্বোচ্চ ১৬ ওভার ৪ বল খেলেছিল স্কটিশদের বিপক্ষে। তবে দৃঢ় প্রত্যয় এবং অদম্য তাড়না নিয়েই কোয়াটার ফাইনালে স্বাগতিক সাউদ আফ্রিকার মুখোমুখি হয়ে টসে হেরে আগে ব্যাটিং করে নিলো ৫০ ওভার খেলার স্বাদ। সেই সাথে ব্যাটে – বলে বা ফিল্ডিংয়ে পাত্তাই দেয়নি স্বাগতিকদের।

গতকাল (৩০’শে জানুয়ারী) পাচেফস্ট্রুমে স্বাগতিকদের ১০৪ রানে উড়িয়ে দিয়ে শেষ চার নিশ্চিত করেছে বাংলাদেশের যুবারা। যেখানে আগে থেকেই বাংলাদেশের জন্য অপেক্ষা করছিল এবারের আসরের শিরোপার অন্যতম দাবিদার নিউজিল্যান্ড।

গ্রুপ পর্বে খুব একটা সুবিধা করতে না পারলেও কোয়াটার ফাইনালে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে ২ উইকেটের জয় পেয়ে বেশ ভালো রিদমে আছেন কিউই যুবারা।

গ্রুপ পর্বে মাত্র ১টি ম্যাচ জিতেছে লংকানদের বিপক্ষে। ১ ম্যাচ জিতে ‘এ’ গ্রুপের রানার্স আপ থেকেই খেলেন কোয়াটার ফাইনাল৷ সেখানেও হোচট খেতে খেতে বেচে যায় কিউইরা।

ক্যারিবিয়ান যুবাদের দেওয়া ২৩৯ রানের টার্গেটে ১৫৩ রানেই ৮ উইকেট হারায় কিউইরা৷ তবে নবম উইকেট জুটিতে জো ফিল্ড এবং ক্রিশ্চিয়ান ক্লার্কের ৮৬ রানের অপরাজিত জুটিতে সেমিফাইনালে ওঠে কিউইরা।

একদিকে অদম্য ধারাবাহিক বাংলাদেশ অপর দিকে খুড়িয়ে খুড়িয়ে সেমিতে ওঠা নিউজিল্যান্ড। তবে সুযোগ পেলে যেকোনো সময় ম্যাচের ফলাফল পাল্টে দেওয়ার ক্ষমতা রাখে সেটিও নিশ্চই জানে বাংলাদেশ৷ তাই চ্যালেঞ্জ হিসেবে না দেখে আর দশটা ম্যাচের মতই স্বাভাবিক ক্রিকেট খেলতে চান তামিম-আকবর আলীরা।

আগামী ৬’ই ফেব্রুয়ারী পাচেফস্ট্রুমেই নিউজিল্যান্ড অনূর্ধ্ব-১৯ দলের মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ অনূর্ধ্ব-১৯ দল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »