সাকিব খেলবেন তো?

নিউজ ডেস্ক »

বিশ্বকাপে বাংলাদেশের চতুর্থ ম্যাচ, প্রতিপক্ষ স্বাগতিক ভারত। এ বিশ্বকাপে এখনো অপ্রতিরোধ্য টিম ইন্ডিয়া। তিনটা ম্যাচ খেলে তিনটাতেই দাপুটে জয়। বাংলাদেশের দৃশ্যপটটা ভিন্ন। তিন ম্যাচে একটা জয়।

তবুও ভারত বলেই এ দেশের অগণিত ক্রিকেট ভক্ত কিছুটা হলেও আশা রাখছেন। ভারত বড় বড় দলগুলোর বিপক্ষে সহজে উতরে গেলেও বাংলাদেশের সামনে পড়লে যেন ঘাবড়ে যায়। সবশেষে ৪ দেখায় তিনটায়ই জয় টিম টাইগার্সের। বিশ্বকাপে যদিওবা বাংলাদেশের ১ জয়ের বিপরীতে ৩টাতে জয় টিম ইন্ডিয়ার।

ভারত বধের স্বপ্ন দেখতে থাকা বাংলাদেশের নেতৃত্বে থাকবেন কে? অধিনায়ক সাকিব আল হাসানের চোট পুরোপুরি সেরে না উঠায় এ প্রশ্নটা থেকেই যায়। কাল সন্ধ্যায় দল যখন অনুশীলন করছিলো সাকিব তখন হাসপাতালে। দ্বিতীয় বার স্ক্যান করালেও সেটার রিপোর্ট কি এসেছে সেটা এখনো জানা যায়নি।

ম্যাচপূর্ববর্তী সংবাদ সম্মেলনে হেড কোচ চান্ডিকা হাথুরুসিংহে বললেন, ম্যাচের দিন সকালেই নেয়া হবে সাকিবের ব্যাপারে সিদ্ধান্ত। টিম ম্যানেজমেন্ট হয়তো সাকিবকে খেলানোর লোভটা ভারত ম্যাচে সামলাতে পারবে না। কিন্তু এতে ভয়ও আছে। যদি সাকিবের চোট বেড়ে যায় সেক্ষেত্রে বিশ্বকাপের বাকি পাঁচটা ম্যাচ খেলা নিয়ে দেখা দিবে শঙ্কা। দলনেতাকে হারিয়ে তখন আরো কঠিন হতে পারে টাইগারদের রাস্তা।

পুনের মহারাষ্ট্র স্টেডিয়ামে দুপুর আড়াইটায় স্বাগতিকরা আতিথেয়তা করবে বাংলাদেশের। ঘরের মাঠ, চেনা কন্ডিশন, গ্যালারী ভর্তি দর্শক সবই জয়ের পাল্লাটা ভারতের দিকে এগিয়ে রাখবে। তবুও বাংলার ক্রিকেট ভক্তরা টিভি সেটের সামনে থেকে চোখ সরাতে পারবেননা, কারণ ভারত যে বাংলাদেশের সামনে একটু বেশিই অগুছালো।

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »