সবকিছুই মুশফিকের আবেগের ফলঃ সাকিব

নিউজ ডেস্ক »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সবথেকে পরিশ্রমী এবং আবেগী ক্রিকেটার মুশফিকুর রহিম। দিনে সবার আগে এবং সন্ধ্যায় সবার শেষে মাঠ ছাড়েন মুশফিকুর রহিম। ছুটির দিনেও ব্যক্তিগত ভাবে প্রাকটিস করেন মুশফিকুর রহিম। মাঠে বিভিন্ন আবেগী উদযাপনেও শিরোনামে আসেন প্রায়ই।

গত ২০১৬ টি২০ বিশ্বকাপে ভারতের কাছে ১ রানে হেরেছিলো বাংলাদেশ। ৩ বলে লাগতো মাত্র ২ রান। তার আগে হার্দিক পান্ডিয়ার বলে চার মেরে উদযাপন করেন তিনি। পরে বাংলাদেশ মঢাচটি হেরে যাওয়ায় উদযাপনের সমালোচনা হয়েছিলো বেশ। ভারতীয়রা এখনও সুযোগ পেলে সেটাকে খোঁচা। মারতে ভোলেননা। ক্রিকবাজে সাকিব আল হাসানকে পেয়ে উপস্থাপক হার্শ ভেগলেও উল্লেখ করলেন সে কথাই। এসময় সাকিব আল হাসান বলেন সে ম্যাচটি একটি শিক্ষাও দিয়েছে দলকে৷ জয়ে কাছাকাছি পৌঁছালে এখনও মনে পরে ঐ ম্যাচের কথা। সাকিবের ভাষায়, ‘এখনও কোন ক্লোজ ম্যাচ হলে আমাদের সবার আগে ঐ ম্যাচের কথা মনে পরে৷ ঐ ম্যাচটি অনেক বড় ধাক্কা ছিলো। আবার পাশাপাশি শিক্ষারও ছিলো। আমরা অনুধাবন করেছি শেষ হওয়ার আগে কোনকিছু শেষ নয়।’

মুশফিকের এভাবে অতিরিক্ত উদযাপন সেটা হোক নাগিন ডান্স কিংবা অন্য কিছু সবগুলোই আসলে মুশফিকের আবেগের কারণে হয়। পরিশ্রম যেভাবে সবার থেকে বেশী করে তাই আবেগটাও সবার থেকে বেশী। কোন কখনও হারতে চায়না সে। সাকিব আল হাসান বলেন, ‘সে (মুশফিক) আমাদের দলের সবথেকে পরিশ্রমী ক্রিকেটার। এতো পরিশ্রম করে বলেই ব্যর্থতা মেনে নিতে চান না। সে খুবই আবেগী। নাগিন ডান্স বলেন বা অন্য উদযাপন বলেন সবই ওর আবেগের বহিঃপ্রকাশ। এসব আমাদের কাছে খুবই মজার।’

এসময় মুশফিকুর রহিমের ভূয়সী প্রশংসা করেন সাকিব আল হাসান৷ সব সময় কিছু করার তাড়নায় থাকেন মুশফিকুর রহিম। নিজেকে মেলে ধরতে চায় বলেই চাপটা তার বেশি থাকে বলে জানান সাকিব।

নিউজ ক্রিকেট/কেএমএএইচ

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »