শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ১ রানে জয় পেল দক্ষিন আফ্রিকা

মমিনুল ইসলাম »

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের প্রথম টি-টোয়েন্টিতে শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে শেষ ওভারে লুঙ্গি এনগিদির দুুর্দান্ত বোলিং ১ রানে ম্যাচ জিতে নিলো স্বাগতিক দক্ষিন আফ্রিকা। আর তাতে তিন ম্যাচের টি-টোয়ান্টি সিরিজে ১-০ তে এগিয়ে গেলো প্রোটিয়ারা।

১৭৮ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে শুরুটা ভালো করতে পারেননি ইংলিশরা। দলীয় ১৯ রানে জস বাটলারকে ফিরিয়ে দক্ষিন আফ্রিকাকে ব্রেক থ্রু এনে দেন ডেইল স্টেইন। ৩ চারের সাহায্যে ১০ বলে ১৫ রান করে মিলারের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফিরেন বাটলার। তবে বাটলার বিদায়ের পর জনি বেয়ারস্টোকে নিয়ে শক্ত প্রতিরোধ গড়ে তুলে ওপেনার জেসন রয়। জেসন রয় ও জনি বেয়ারস্টোর ৭২ রানের জুটিতে আঘাত হানেন ফেলকু। ৩ চারের সাহায্যে ১৯ বলে ২৩ রান করা বেয়ারস্টোকে সাজঘরে ফেরান ফেলকু। এরউ মাঝে মাত্র ২২ বলে ফিফটি তুলে নেন জেসন রয়। অধিনায়ক মরগানকে সাথে নিয়ে জয়ের পথে হাঁটলেও রয় পথ হারান ৭০ রানে এসে। ৩ ছয় ও ৭ চারের সাহায্যে মাত্র ৩৮ বলে ৭০ রান করে হেন্ড্রিক্সের বলে সাজঘরে ফিরেন।

জেসন রয়ের বিদায়ের পর অধিনায়ক মরগান ছাড়া আর কেউ সেভাবে দাঁড়াতে পারেননি ৩৩ বলে ফিফটি তুলে নেয়া মরগান ফিরে যান ৫২ রান করে। শেষ ওভারে ইংলিশদের জয়ের জন্য প্রয়োজন ছিলো মাত্র ৭ রান। লুঙ্গি এনগিদির হাতে বল তুলে দেন অধিনায়ক ডি কক। প্রথম বলে ২ রান আসে টম কুরানের ব্যাট থেকে তবে পরের বলেই মিডউইকেটে মিলারের সাথে ক্যাচ দেন কুরান। তৃতীয় বল থেকে কোন রান নিতে পারেনি মইন আলি তবে চতুর্থ বল থেকে আবারও আসে দুই রান। ৫ বলে এসে ছন্দপতন হয় মইন আলির ফিরে যান সাজঘরে। শেষ বলে যখন জয়ের জন্য ৩ রান দরকার ইংল্যান্ডের তখন শেষ বলে ২ রান নিতে গিয়ে রানআউটে কাটা পড়েন আদিল রশিদ।

শেষ পর্যন্ত শ্বাসরুদ্ধকর ম্যাচে ১ রানের জয় তুলে নেয় স্বাগতিকরা । স্বাগতিকদের হয়ে তিন উইকেট নেন এনগিদি, দুইটি করে উইকেট নেন ফেলকু আর একটি উইকেট নেন স্টেইন।

এরআগে টসে হেরে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ডি কক ও বাভুৃমা। ৩ চার ও ২ ছয়ের সাহায্যে ১৫ বলে ৩১ রান করে মইন আলির বলে ফিরে গেলে ভাঙ্গে ডি কক আর বাভুমার ৪৮ রানের উদ্বোধনী জুটি। ডি ককের বিদায়ের পর উদ্বোধনী জুটির পথেই হাঁটতে থাকে ভ্যান ডুসেন ও বাভুমা। এই দুইজনের জুটি থেকে আসে ৬৩ রান । ৩১ রান করে ভ্যান ডুসেন ফিরে গেলে ভাঙ্গে তাদের এই জুটি। ডুসেনের বিদায়ের পর বেশি সময় থাকতে পারেননি বাভুমাও। ডুসেনের বিদায়ের পরের ওভারেই আদিল রশিদের শিকার হন বাভুমা। সাজঘরে ফিরেন ২৭ বলে ৪৩ রান করে।

তাদের বিদায়ের পর মিলার, স্মুটস ও ফেলকুর ব্যাট থেকে আসে যথাক্রমে ১৬,২০ ও ১৮ রান। তাদের ছাড়া আর কেউই সেভাবে দাঁড়াতে পারেননি। শেষ পর্যন্ত নির্ধারিত ২০ ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে ১৭৭ রান তুলে দক্ষিন আফ্রিকা। ইংলিশদের হয়ে ২ উইকেট নেন জর্ডান আর একটি করে উইকেট নেন উড, রশিদ,কুরান, স্টোকস ও মঈন আলিরা।

স্কোরকার্ড:

দক্ষিন আফ্রিকা : ১৭৭/৮ ( ২০ ওভার) , বাভুমা ৪৩, ডি কক ৩১, জর্ডান ২/২৮

ইংল্যান্ড : ১৭৬/৯ ( ২০ ওভার) , জেসন রয় ৭০, মরগান ৫২, এনগিদি ৩/৩০

 

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »