লাহোরে খেলতে যাচ্ছেন সাঙ্গাকারা

মমিনুল ইসলাম »

দলের হাজারো ব্যর্থতার মাঝে দলের ঢাল হয়ে পিচে দাঁড়িয়ে থাকা কিংবা ২০১৫ সালের বিশ্বকাপে টানা চার সেঞ্চুরি এসব কুমার সাঙ্গাকারাকে চিরস্মরণীয় করে রাখবে। ব্যাট-প্যাড তুলে রেখেছেন অনেক আগেই তবে আবারও ব্যাট-প্যাডে দেখা যাবে লঙ্কান কিংবদন্তি কুমার সাঙ্গাকারাকে। এমসিসির হয়ে ক্রিকেট খেলতে এবার পাকিস্তান সফরে যাচ্ছেন এই লঙ্কান গ্রেট।

পাকিস্তানে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরাতে নিজেদের চেষ্টার কমতি রাখছে না পাকিস্তান। এরই মাঝে শ্রীলঙ্কা ও বাংলাদেশের সাথে সফল ভাবে সিরিজ আয়োজন করেছে পাকিস্তান। এছাড়াও দক্ষিন আফ্রিকা খেলতে আসছে খুব শীগ্রই। এবার তাদের দলে যোগ দিচ্ছেন এমসিসি। চারটি চ্যারিটি ম্যাচের জন্য ইতিমধ্যে নির্ধারণ করা হয়েছে সফরসূচি।

২০০৯ সালে যখন শ্রীলঙ্কা দলের উপর সন্ত্রাসী হামলা করা হয় সেই দলের সদস্য হিসেবে ছিলেন কুমার সাঙ্গাকারাও। প্রায় ১০ বছর পর ব্যাট-প্যাড হাতে পাকিস্তানে যাচ্ছেন এই লঙ্কান গ্রেট। আগামী ১৩-১৯ ফেব্রুয়ারী এমসিসির সাথে চারটি চ্যারিটি ম্যাচ আয়োজন করবে পাকিস্তান। এমসিসির দায়িত্বে থাকবে কুমার সাঙ্গাকারা।

আগামী ১৪ ফেব্রুয়ারি লাহোরের গাদ্দাফি স্টেডিয়ামে পাকিস্তান সুপার লিগের দল লাহোর কালান্দার্সের বিপক্ষে ম্যাচ দিয়ে শুরু হবে এমসিসির পাকিস্তান সফর। এরপর রোববারে পাকিস্তান শাহিন্সের বিপক্ষে খেলবে একটি ওয়ানডে ম্যাচ। সোমবার পাকিস্তানের ঘরোয়া টি-টোয়েন্টির চ্যাম্পিয়ন নর্দানের বিপক্ষে খেলবে একটি ম্যাচ। আর ১৯ ফেব্রুয়ারি পিএসএল চ্যাম্পিয়ন মুলতান সুলতানসের বিপক্ষে টি-টোয়েন্টি ম্যাচ দিয়ে শেষ হবে এমসিসির পাকিস্তান সফর। পরের ম্যাচ তিনটি অনুষ্ঠিত হবে আইতচিনসন কলেজ মাঠ।

সুচি

 তারিখ                   বিপক্ষ
১৪ ফেব্রুয়ারি – লাহোর কালান্দার্স
১৬ ফেব্রুয়ারি – পাকিস্তান শাহিন্স
১৭ ফেব্রুয়ারি – নর্দান
১৯ ফেব্রুয়ারি – মুলতান সুলতানস

এমসিসির স্কোয়াড:

কুমার সাঙ্গাকারা ( অধিনায়ক) , রবি বোপারা, মাইকেল বারজেস, মাইকেল লিস্ক, ফ্রেড ক্লাসেন, অলিভার -হ্যানন-ড্যালবি, অ্যারন লিলি, ইমরান কাইয়ুম, সাফিয়ান শরীফ, উইল রোডস, রোয়োলোফ ফন ডার মারউই, রস হোয়াইটলি।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »