fbpx

যোগ্য বোলার হিসাবে জেমসের ৯০০*

রাসেল »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন ফরম্যাট মিলিয়ে বিশ্বের ষষ্ঠ বোলার হিসেবে ৯০০ উইকেটের মাইলফলক স্পর্শ করেছেন ইংলিশ পেসার জেমস আন্ডারসন। গ্লেন ম্যাকগ্রা এবং ওয়াসিম আকরাম এর পর তৃতীয় পেসার হিসাবে এই মাইল ফলকে পৌঁছেছেন তিনি। ভারতের বিপক্ষে আহমেদাবাদ টেস্টে আজিঙ্কা রাহানেকে আউট করে ৯০০* উইকেট পূরন করেছেন জেমস।

২০০২ সালে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ওয়ানডে দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে পথচলা শুরু করেন জেমস আন্ডারসন। ২০০৩ সালে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে টেস্ট ক্রিকেটে অভিষেক ঘটে তাঁর। দীর্ঘ ১৯ বছরের আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে অনেক চড়াই-উতরাই পার করে আজকের এই পর্যায়ে এসেছেন তিনি। একজন পেসার হিসাবে এতটা পথ পাড়ি দেওয়া সহজ ছিল না তাঁর জন্য। এক সময় ইংল্যান্ডের ওয়ানডে দলেও গুরুত্বপূর্ন সদস্য হিসাবে ছিলেন। তারপর টেস্ট ক্রিকেটেই নিজেকে পুরোপুরি মেলে ধরেন। টেস্ট ক্রিকেটে বিশ্বের সর্বোচ্চ উইকেট শিকারি পেসার জেমস। যার বোলিংয়ে এখনও রয়েছে মুগ্ধতার ছোঁয়া। যোগ্য বোলার হিসাবেই ৯০০* উইকেট নেওয়ার কৃতিত্ব দেখালেন তিনি।

জেমস আন্ডারসন বর্তমান বিশ্বের অন্যতম সেরা পেসার, ৩৮ বছর ২১৯ দিন বয়সেও টেস্ট ক্রিকেটে প্রতিনিধিত্ব করছেন তিনি। বিশ্বের একমাত্র পেসার হিসাবে খেলে ফেলেছেন ১৬০ টি আন্তর্জাতিক টেস্ট ম্যাচ। তার মতো পেসার ক্রিকেটে বিশ্বে বিরল! পৃথিবীতে সাধারণত দুই ধরনের পেসার আছে। এক পেস এবং বাউন্স দিয়ে আপনাকে নাজেহাল করে দিবে। দুই সুইং আর লাইন-লেংথ দিয়ে নাকাল করে দিবে। আপনি যখন টেস্ট ম্যাচ দেখবেন তখন দুই ধরনের বল দেখেই মজা পাবেন। কিন্ত সুইংয়ে যে জাদু তা আপনাকে টিভির সামনে বসিয়ে রাখবে। আর পুরো ক্যারিয়ারে সেই কাজটিই করে আসছেন জেমস। মরা পিচেও দেখিয়ে চলছেন তার বোলিং কারিশমা!

জেমসের বলে গতি কিংবা বাউন্স নেই। কিন্তু তার মায়াবি সুইংয়ে কুপোকাত ব্যাটসম্যানরা। অফ স্টাম্প থেকে আউট সুইং কিংবা ইনসুইং ব্যাটসম্যানদের ১২ টা বাজিয়ে দিবে। মিডেল স্টাম্পে পরে খানিকটা লেট সুইংয়ে স্টাম্প উপরে যাওয়া দৃশ্য দেখে নিমেষেই ঘোর কাটবে, আহ্ কি সুন্দর সেই দৃশ্য।

আহমেদাবাদ টেস্টে কথাই ধরুন! প্রথম ইনিংসে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে ভারতের ২ পেসার ইশান্ত শর্মা এবং মোহাম্মদ সিরাজ ছিলেন নিষ্প্রভ! আগের টেস্টে তো পুরো ম্যাচেই রাজত্ব করলেন স্পিনাররা। তা নিয়ে কতো আলোচনা- সমালোচনা হলো, সেই একই পিচে শেষ টেস্টে ভারতের প্রথম ইনিংসে বল হাতে দাপট দেখাচ্ছেন জেমস আন্ডারসন। ভারতীয় ব্যাটসম্যানদেরকে নাচিয়ে তুলছেন পরিচিত সুইংয়ে! ভারতের ওপেনার শুভমান গিলকে রানের খাতা খোলার আগেই ফিরেয়ে দিলেন এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলে। তারপর সেট ব্যাটসম্যান আজিঙ্কা রাহানেকে ফেরালেন ক্যাচ আউট করে। এখন পর্যন্ত ২০ ওভার বল করে ১১ মিডেনে ৪০ রান দিয়ে নিয়েছেন ৩ উইকেট! ম্যাচে অবিশ্বাস্য বোলিং করে যাচ্ছেন তিনি।

তর্ক হতে পারে, তবে এই মূহুর্তে জেমস বিশ্বের সেরা সুইং বোলার তা মেনে নিবে যে কেউ।সাপের মতো বেকে যাওয়া বল খেলতে হিমশিম খাবেন বিশ্বের বাঘা বাঘা ব্যাটসম্যানরাও। পাবলো পিকাসোর তুলির আঁচড় কিংবা জন মিলটনের প্যারাডাইস লস্ট, কিংবা ওয়াসিম আকরাম এর পুরনো বলে রিভার্স সুইং অথবা জিমির হাতের নতুন বলে সাপের নাচন, আমার কাছে সবই এক। ক্রিকেট এর থেকে সুন্দর হতে পারে না!

আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে তিন ফর্মেট মিলিয়ে ৩৭৩ ম্যাচ খেলে ৫০৭ ইনিংস বোলিং করে ৯০১* উইকেট নিয়েছেছ জেমস আন্ডারসন। টেস্টে ৬১৪* ওয়ানডেতে ২৬৯, টি টোয়েন্টি ক্রিকেটে ১৮ উইকেট নিয়েছেন তিনি। তিন ফর্মেট মিলিয়ে ৩২ টি ফাইবার রয়েছে তার। ১০ উইকেট নিয়েছেন ৩ বার এবং ইনিংসে ৪ উইকেট নিয়েছেন ৩৮ বার। সুযোগ রয়েছে সর্বোচ্চ উইকেট শিকারির তালিকায় সেরা পাঁচে উঠে আসার।

এক নজরে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটে ৯০০ উইকেট নেওয়া ৬ বোলার!

নাম– উইকেট — ইনিংস ঃ
মুত্তিয়া মুরালিধরন -১৩৪৭(৫৮৩)।
শেন ওয়ার্ন –১০০১(৪৬৪)
অনিল কুম্বলে –৯৫৬(৫০১)
গ্লেন ম্যাকগ্রা — ৯৪৯(৪৯৩)
ওয়াসিম আকরাম –৯১৬(৫৩২)
জেমস আন্ডারসন –৯০১*(৫০৭)।

# নিউজক্রিকেট/ রাসেল।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »