fbpx

‘মানকাডিং’ নিয়ে মুখ খুললেন কোর্টনি ওয়ালশ

https://scontent.fdac4-1.fna.fbcdn.net/v/t1.0-1/c0.0.240.240a/p240x240/51944597_2359806007364192_9161774462004101120_n.jpg?_nc_cat=102&_nc_eui2=AeFcipYmUQ-zg44wTqI_uZtpFgfJ4Exn1XfSEN67qwlIW2D6Rn9MoK6IjCWRQM0f2UXeldOwo28xNalSOoWbLYyQiCB4RD_YmCz3baSliAHc9w&_nc_ht=scontent.fdac4-1.fna&oh=340b0eaa925f43012c08a04eecfc634d&oe=5D09FC50 »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আইপিএলের ১২তম আসরের সবচাইতে বড় আলোচনার বিষয় হয়ে দাঁড়িয়েছে ভারতইয় ক্রিকেটার রবি চন্দ্রন অশ্বিনের মানকাডিং আউট। বাটলারকে আউট করার ওই ভিডিও মুহূর্তেই ভাইরাল হয়ে যায় সামাজিক যোগাযোক মাধ্যমে। আর এতেই তুখোর সমালচনার মুখে পড়েন অশ্বিন।

সমালোচনা যতই হোক না কেন বিশ্ব ক্রিকেটের নিয়মের মধ্যে মানকাডিং আউটকে বৈধ ঘোষণা করায় পরিষ্কার যুক্তি দেখিয়েছেন অনেকেই। অশ্বিনের এই আউট নিয়ে এবার মুখ খুললেন বাংলাদেশ জাতীয় দলের পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ।

ওয়ালশ বলেন, ‘খেলায় সবার উপরে থাকবে খেলোয়াড়ি মনোভাব। এখনও ক্রিকেট খেললে আমি সেই খেলোয়াড়ি মনোভাব দেখিয়েই খেলতাম। এর কোনও নড়চড় হতে দিতাম না। এখনও এতটুকু আক্ষেপ নেই। বরাবর বিশ্বাস করেছি, অসৎ ভাবে বা অখেলোয়াড়ি মনোভাব দেখিয়ে খেলার মাঠে জয় করা যায় না। এখনও তাই মনে করি।’

১৯৮৭ সালে আইসিসি বিশ্বকাপে পাকিস্তানের শেষ বলে প্রয়োজন ছিল ২ রানের। বোলিংয়ে থাকা ওয়ালশ সেদিন মানকাডিং আউট করার সুযোগ পেয়েছিলেন পাকিস্তানের দশম ব্যাটসম্যানকে। তবে সেটা তিনি করেননি। ফলে ম্যাচ হেরে সেমি ফাইনাল থেকে বাদ পড়ে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সেই আউটটি না করেও কোনো আক্ষেপ যে নেই তাঁর এমনটাই জানা গেল তাঁর বক্তব্যে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »