ভারত বানিজ্যে রাজী, সমস্যা শুধুই ক্রিকেটে!

কে এম আবু হুরায়রা »

ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ যেন পুরো বিশ্বের একটা আলোড়নের মত। বর্তমানের ফ্রাঞ্চাইজি টি২০’র যুগেও ভারত পাকিস্তানের টেস্ট ম্যাচেও উত্তাপ ছড়ায় দ্বিগুণ। তবে রাজনৈতিক দ্বন্দের কারনে এখন আর সে ক্রিকেট দেখা যায়না কোন দ্বিপক্ষীয় সিরিজ৷ আইসিসির বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট ব্যাতিত একসাথে ভারত-পাকিস্তান লড়াই দেখা যায়না ততটা।

সম্প্রতি এই দ্বিপক্ষীয় সিরিজ নিয়ে নিজের ইউটিউব চ্যানেলে মুখ খুলেছেন শোয়েব আক্তার৷ তার মতে বানিজ্যের সময় সব ঠিক থাকলেও ক্রিকেট সিরিজে অনীহার করন খুঁজে পাননা তিনি। শোয়েবের ভাষায়, ‘আমরা একে অপরের সাথে ডেভিস কাপ কিংবা কাবাডি খেলতে পারি তাহলে ক্রিকেটে সমস্যা কোথায়? বুঝলাম ভারত পাকিস্তানে আসবেনা৷ পাকিস্তান দলও ভারতে যাবেনা তবে আমরা এশিয়া কাপ বা বিশ্বকাপের মত নিরপেক্ষ ভেন্যুতে মুখোমুখি হতে সমস্যা কোথায়?’

এর আগেও ভারতীয় কবাডি দল, বাংলাদেশ এবং শ্রীলঙ্কা খেলেছেন পাকিস্তানে। পাকিস্তান এখন খুবই নিরাপদ দেশ। তবে কবাডি দল আসতে পারলে ক্রিকেট দল আসতে সমস্যা কেনো? এমন প্রশ্ন করে শোয়েব বলেন, ‘পাকিস্তানে খেলতে যদি সমস্যা হয় তবে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলা হোক। পাকিস্তানও ভ্রমণের জন্য নিরাপদ যায়গা। তাদের কাবাডি দল এসেছে। এর পরও যদি সমস্যা থাকে নিরপেক্ষ ভেন্যুতে খেলার প্রস্তাব দিচ্ছি। পাকিস্তান আতিথেয়তায় সেরা দেশ। ওরাও এটা জানে। শেবাগ, গাঙ্গুলি বা শচীনকে জিজ্ঞেস করুন। আমরা ওদের ভালোবাসি। আমাদের মধ্যে যে দূরত্ব সেটা ক্রিকেটে প্রভাব পরলে ঠিক হবেনা৷ আমি আশা করি ভারত-পাকিস্তান দিপক্ষীয় সিরিজ খেলবে।’

ভারত-পাকিস্তান সর্বশেষ ওডিআই সিরিজ খেলেছিল ২০১২-১৩ সালে। তবে টেস্ট খেলেছে আরও আগে ২০০৭ সালে। এরপর কোন দ্বিপক্ষীয় সিরিজ খেলেনি দু’দল। অথচ বানিজ্য বা কাবাডি দল বার বার খেলেছে পাকিস্তানে। সম্পর্ক ত্যাগ করতে হলে সব কিছুই ত্যাগ করতে হবে বলে মনে করেন শোয়েব।

শোয়েবের ভাষ্যে, ‘সম্পর্ক ছেদ করতে হলে ব্যাবসা-বানিজ্য বন্ধ করুন। কাবাডি খেলা বন্ধ করুন। শুধু ক্রিকেট কেনো? ক্রিকেটের বিষয় হলেই রাজনৈতিক ইস্যু হয় এটা অনেক হতাশার। আমরা পিঁয়াজ-টমেটোর ব্যাবসা করতে পারি তাহলে ক্রিকেটে সমস্যা কোথায়?’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »