ভারত-পাকিস্তানের ব্যবধানটা বেড়ে দাঁড়ালো ৭-০

https://scontent.fdac4-1.fna.fbcdn.net/v/t1.0-9/36386236_2027432020601594_1928619179817041920_n.jpg?_nc_cat=104&_nc_eui2=AeFY40879vpUlXD3TvLuwunYiYPt9keMWugjnmsYPL9A2_cQ-azY1GmWWQy36LFNFzNLAU2kdDYB9vV9Qwdjt7cfxuFbw0DGkcoiJ24B4pOm6Q&_nc_ht=scontent.fdac4-1.fna&oh=926e9b4229d9f6e3ffd66fe5510e3767&oe=5D672D33 »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপের হাই ভোল্টেজ ম্যাচে পাকিস্তানকে বৃষ্টি আইনে ৮৯ রানের বিশাল ব্যবধানে হারিয়েছে ভারত। এর আগে বিশ্বকাপে ছয় বারের দেখায় একবারও জিততে পারেনি পাকিস্তান। এবার সেই ব্যবধানটা বেড়ে দাঁড়ালো ৭-০।

ভারতের দেয়া ৩৩৭ রানের লক্ষ্যে খেলতে নেমে দলীয় ১৩ রানেই প্রথম উইকেট হারায় পাকিস্তান। তিনে নামা বাবর আজমকে সাথে নিয়ে ১০৪ রানের বড় জুটি গড়েন ফখর জামান। ৫৭ বলে ৪৮ রান করে বাবর আজম ফিরে যান কুলদিপ যাদবের বলে। এরপরই ছন্দপতন ঘটে পাকিস্তানের ব্যাটিং লাইনআপে। মাত্র ১২ রানের ব্যবধানে ৩ উইকেট হারালে ব্যাটিং বিপর্যয়ে পড়ে সরফরাজ আহমেদের দল। সেই ধাক্কা আর সামাল দিতে পারেনি পাকিস্তানি ব্যাটসম্যানরা। ৩৫ ওভারে ১৬৬ রানে ছয় উইকেট হারালে ম্যাচে হানা দেয় বৃষ্টি। শেষ পর্যন্ত বৃষ্টি আইনে ইনিংসের দৈর্ঘ্য কমে নেমে আসে ৪০ ওভারে। ৪০ ওভারে পাকিস্তানের লক্ষ্য বেধে দেয়া হয় ৩০২ রানে। তবে শেষের দিকে আর উইকেট না হারালেও পাকিস্তান হারে ৮৯ রানের বিশাল ব্যবধানে।

বল হাতে টিম ইন্ডিয়ার হয়ে বিজয় শঙ্কর, হার্দিক পান্ডিয়া, কুলদিপ যাদব প্রত্যেকে নেন ২টি করে উইকেট।

এর আগে শুরুতে টস হেরে ব্যাট করতে নামা ভারত উড়ন্ত সূচনা পায় রোহিত শর্মা এবং লোকেশ রাহুলের ব্যাটে। শিখর ধাওয়ান ইনজুরিতে থাকায় এদিন ওপেনিং করেন রাহুল। রাহুল ৫৭ রানে ফিরে গেলেও পাকিস্তানি বোলারদের উপর স্ট্রিম রোলার চালিয়ে ৮৫ বলে দুর্দান্ত সেঞ্চুরি তুলে নেন রোহিত। তিনে নামা বিরাট কোহলির সাথে রোহিতের ৯৮ রানের জুটি ভাঙে হাসান আলির বলে ওয়াহাব রিয়াজের হাতে রোহিত ক্যাচ তুলে দিলে। সাজঘরে ফেরার আগে রোহিতের ব্যাট থেকে আসে ১১৩ বলে ১৪০ রান। এদিকে দ্রুত রান তুলতে এদিন চারে নামিয়ে দেয়া হয় হার্দিক পান্ডিয়াকে। অবশ্য খুব বেশি সুবিধা করতে পারেননি এই অলরাউন্ডার। পান্ডিয়ার ব্যাট থেকে আসে মাত্র ২৬ রান। ৪৬.৪ ওভারে বৃষ্টি বাধায় ম্যাচ পড়লে তখন পর্যন্ত ৪ উইকেট হারিয়ে ভারতের স্কোরবোর্ডে থাকে ৩০৫ রান। অন্যদিকে ব্যাট হাতে ম্লান ছিলেন অভিজ্ঞ ধোনি এবং বিজয় শঙ্কর। কাপ্তান কোহলির ব্যাট থেকে এদিন আসে ৬৫ বলে ৭৭ রানের ঝলমলে ইনিংস। নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৫ উইকেট হারিয়ে শেষ পর্যন্ত ৩৩৬ রানের বড় স্কোর গড়ে টিম ইন্ডিয়া।

বল হাতে এদিক আঁটসাঁট বোলিং করেছেন মোহাম্মদ আমির। দশ ওভারে ৪৭ রান খরচায় একটি মেডেন সহ এই পেসার নেন ৩টি উইকেট। বাকি বোলারদের মধ্যে ৮৪ রানে হাসান আলি ১টি ও ৭১ রানে ১টি উইকেট নেন ওয়াহাব রিয়াজ।

এই হারে বিশ্বকাপে এখন পর্যন্ত সাতবারের দেখায় একবারও জয়ের দেখা পায়নি পাকিস্তান। ফলে সমীকরণ এখন বেড়ে দাঁড়ালো ৭-০।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »