বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় হতে পারলে ভালো লাগতঃ সাকিব

নিউজ ডেস্ক »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

গেলো বছরের ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে নজর কাড়া পারফরম্যান্স দিয়ে সবার মনের কোটায় জায়গা করে নিয়েছিলেন বিশ্বসেরা অলরাউন্ডার সাকিব আল হাসান। বাংলাদেশ ক্রিকেট দলের সবথেকে বড় তারকার ব্যাট হতে রীতিমত রানের বন্যা বইছিলো।

মাত্র ৮ ম্যাচ খেলে ৮৬.৫৭ গড়ে ৬০৬ রান সংগ্রহ করেছিলেন সাকিব। যেখানে ২টি সেঞ্চুরিসহ মোট ৫টি হাফ সেঞ্চুরি আসে তাঁর ব্যাট থেকে। বাংলাদেশ যদি শেষ চারে যাওয়ার যোগ্যতা অর্জন করতে পারতো তাহলে হয়তো নিজেকে আরো অন্যান্য এক উচ্চতায় নিতে পারতেন বিশ্বের অন্যতম সেরা এই অলরাউন্ডার।

পুরো টুর্নামেন্ট জুড়েই নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে ছুরি ঘুরিয়েছেন সাকিব। বিশ্বকাপে খেলা ম্যাচগুলোয় দারুণ পারফরম্যান্স করলেও শেষ পর্যন্ত সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার পাওয়া হয়নি সাকিবের। সাকিবের পরিবর্তে নিউজিল্যান্ডের অধিনায়ক কেন উইলিয়ামসনের থলিতে উঠেছিলো টুর্নামেন্ট সেরার পুরষ্কার।

বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড় হতে না পারার কষ্ট এখনও সাকিবের মনে রয়ে গেছে। সম্প্রতি ধারাভাষ্যকার হার্শা ভোগলের সঙ্গে জনপ্রিয় ক্রিকেট ওয়েবসাইট ক্রিকবাজে এক লাইভ প্রোগ্রামে অংশ নেন সাকিব। সেখানে হার্শার সাথে দারুণ আড্ডা জমে উঠে সাকিবের। আলাপের এক পর্যায়ে বিশ্বকাপের প্রসঙ্গ চলে আসে। তখন টুর্নামেন্টের সেরা খেলোয়াড় হওয়ার ব্যাপারে সাকিব বলেন, ‘এটা দারুণ ব্যাপার হতো যদি আমি বিশ্বকাপের সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার অর্জন করতে পারতাম। তবে আমি মনে করি উইলিয়ামসনের এটা প্রাপ্য ছিল। সে যেভাবে তাঁর দলকে পরিচালনা করেছে তা দুর্দান্ত।’

বিশ্বকাপে সাকিবের চেয়ে কম রানই সংগ্রহ করেছিলেন কিউই তারকা ব্যাটসম্যান কেন উইলিয়ামসন। ১০ ম্যাচে ৮২.৫৭ গড়ে ৫৭৮ রান সংগ্রহ করেছিলেন তিনি। সেখানে ২টি সেঞ্চুরির পাশাপাশি ২টি হাফ সেঞ্চুরিও ছিল রয়েছে। তার সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কার অর্জনের প্রধান কারণ ছিলো অধিকাংশ ম্যাচে সে দলের জয়ে অবদান রেখেছিলো এমনকি তার নেতৃত্বেই নিউজিল্যান্ড ফাইনালে পৌঁছাতে সক্ষম হয়। যার কারণে সেরা খেলোয়াড়ের পুরস্কারটি শেষ পর্যন্ত তাঁর পকেটেই যায়।

নিউজক্রিকেট/শাওন

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »