বাংলাদেশী পেসাররা কেনো অবহেলিত?

নিউজ ক্রিকেট ২৪ ডেস্ক »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশ্বক্রিকেটের সব দলগুলো, তাদের আক্রমণভাগ সাজায় পেস বোলিং ইউনিট দিয়ে। উপমহাদেশের বাইরের দলগুলো তো পেস বোলার ছাড়া ভাবতেই পারে না। উপমহাদেশের দেশগুলোও যেনো তাদেরই দেখানো পথে হাটছে। এখন উপমহাদেশে আন্তর্জাতিক ম্যাচ থেকে শুরু করে ঘরোয়া কিংবা ফ্রাঞ্চাইজি ভিত্তিক ক্রিকেটেও প্রাধান্য পেয়ে থাকে পেসাররা। তবে বাংলাদেশে দেখা যায় এর ভিন্নচিত্র, এখানে পেসাররা সবসময়ই অবহেলিত।

দেশের মাটিতে টেস্ট খেললে বাংলাদেশ যেনো স্পিন ছাড়া কিছুই বুঝে না। স্পিন সহায়ক পিচ থেকে শুরু করে একাদশে ৩-৪ জন স্পিনার নিয়েও টেস্ট ম্যাচ খেলে আসছে টিম টাইগার্স। অবশ্য এতে সাফল্যও আসছে। আমরা ঘরের মাঠে স্পিন সহায়ক উইকেট বানিয়ে, অস্ট্রেলিয়া ও ইংল্যান্ডের মতো টেস্টে আধিপত্য বিস্তার করার দলগুলোকে খুব সহজেই হারিয়েছি। কিন্তু এতে কি আমাদের আদো কোনো লাভ হচ্ছে? যখনি দেশের বাইরে আমরা খেলতে যাই, আমাদের দলটা যেনো নিজেদের হারিয়ে খুঁজে। আর এর বড় কারণ হচ্ছে পেস বোলারদের বাজে বোলিং। এতে অবশ্য পেসারদের দোষ দেওয়া যাবে না। কেননা আমরা তাদেরকে ঠিকমতো পরিচর্যা করছি না। দোষটা বিসিবির কাঁধেই।

আমরা যদি ভারত পাকিস্তানের দিকে তাকাই, তারা কিভাবে পেসারদের সেরাটা বের করে আনছে? তারাও তো উপমহাদেশেরই দল, তবু তাদের দলের প্রধান অস্ত্র কিন্তু পেসাররাই। তারা দেশের মাটিতে সিরিজগুলাতে পেস সহায়ক উইকেট বানিয়ে পেসারদের ভালো করার সুযোগ করে দেয়। যার ফলে উপমহাদেশের বাইরে খেলতে গেলে ভারত,পাকিস্তানের পেসাররা কোনো রকমের সমস্যার সম্মুখীন হয় না।

বাংলাদেশে কি আসলেই কোনো ভালো মানের পেসার তৈরি হয় না বা নেই? নাকি সবই বিসিবির খামখেয়ালিপনার ফল? আমি আসামী বানাবো বিসিবিকেই। কারণ তারা পেস বোলারদের গুরুত্বের সাথে পরিচর্যা করছে না। বিসিবির ভারতের ক্রিকেট বোর্ডের থেকে শেখা উচিত যে, একটা পেস বোলারকে কিভাবে বিশ্বমানের করে তোলা যায়। ভারত যেখানে বুমরাহ, ভুবনেশ্বরদের মতো সেরাদের খোঁজতে মরিয়া আর বোলারদের স্কিলের ধার বাড়াতে ব্যস্ত, সেখানে বাংলাদেশে পেস বোলার খোঁজা থেকে শুরু করে পেসারদেএ স্কিলের ধার বাড়াতে কোনো আয়োজনে তেমন চোখে পড়ে না।

আমরা তো দেশের মাটিতে সব দলকে আমাদের স্পিন শক্তি দিয়েই ঘায়েল করতে চাই। এখন দলটা হোক উপমহাদেশের অথবা উপমহাদেশের বাইরের, সেটা আমাদের দেখার বিষয় না। আর তাই আমরা দেশের মাটিতে সবগুলো সিরিজেই স্পিন সহায়ক পিচ বানাই। যেখানে আমাদের পার্শ্ববর্তী দেশ ভারত পেস সহায়ক উইকেট বানিয়ে পেসারদের ভালো করার সুযোগ করে দেয়। আমাদের দেশেও ভালো মানের পেসার আছে।

তবে আমরা সেটাকে কাজে লাগাতে পারছি না। দেশের মাটিতে স্পিন সহায়ক উইকেট বানিয়ে প্রতিপক্ষকে ঘায়েল করা, এটা থেকে খুব তারাতারি আমাদের বেরিয়ে আসতে হবে। দেশের মাটিতে সিরিজগুলোর পিচ এমনভাবে বানাই যাতে পেসাররা সুবিধা পায়। আর আমরা তাদের স্কিল নিয়েও একটু কাজ করি। তাহলে দেখবেন উপমহাদেশের বাইরের দেশগুলোতে যেয়ে বাংলাদেশী পেসাররা আর নিজেদেরকে হারিয়ে খুঁজবেন না বরং তারা একের পর এক দেশের হয়ে সাফল্য নিয়ে আসবেন, ইনশাআল্লাহ।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »