প্রোটিয়ারা জোহানসবার্গ টেস্ট বাঁচাতে পারবে তো?

মমিনুল ইসলাম »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

চার ম্যাচের টেস্ট সিরিজের চতুর্থ ও শেষ টেস্টে স্বাগতিক দক্ষিন আফ্রিকাকে চাপে রেখে তৃতীয় দিন শেষে চালকের আসনে ইংল্যান্ড। তৃতীয় দিন শেষে স্বাগতিকদের ৪৬৫ রানের টার্গেট দিয়ে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস শেষ করেছে সফরকারী ইংল্যান্ড। বাকি দুইদিনে আফ্রিকা টেস্ট জিততে পারবে তো?

৮৮ রানে ৬ উইকেট হারিয়ে নিজেদের প্রথম ইনিংসের দ্বিতীয় দিনের খেলা শুরু করে স্বাগতিকরা। সকালের শুরুতেই ফিল্যান্ডের উইকেট হারায় আফ্রিকা। তবে ডি কক ও প্রেটোরিয়াস আশা জাগালেও তা স্থায়ী হয় ৭৯ রানের জুটিতে। কুইন্টন ডি ককের অনবদ্য ৭৬ রানের পরও মার্ক উডের গতির কাছে হার মানতে হয় প্রোটিয়াদের। ডি ককের সাথে প্রিটোরিয়াস ৩৭ রান করলেও দলীয় রান ২০ পেরোতে পারেনি। শেষ পর্যন্ত ১৮৩ রানেই থেমে যায় প্রোটিয়াদের প্রথম ইনিংস।

ইংলিশদের হয়ে প্রোটিয়াদের দুর্গ ভেঙ্গে চুরমার করেন পেসার মার্ক উড। মার্ক উডের সাথে কম যাননি স্টুয়ার্ট ব্রড ও বেন স্টোকসরা। ৪৬ রান দিয়ে ৫ উইকেট তুলে নেন মার্ক উড, দুটি করে উইকেট তুলে নেন স্টুয়ার্ট ব্রড ও বেন স্টোকস আর বাকি এক উইকেট নিয়েছেন স্যাম কুরান।

প্রথম ইনিংসে প্রোটিয়াদের থেকে ২১৭ রানে এগিয়ে থেকে নিজেদের দ্বিতীয় ইনিংস শুরু করে সফরকারীরা। ইংলিশদের মত দাপট দেখান প্রোটিয়াদের পেসাররাও। প্রথম ইনিংসের মত দারুন শুরু এনে দেন ইংলিশদের দুই ওপেনার। তবে ১০ রানের নিচে ৩ উইকেট হারালে দলের হাল ধরেন জো রুট ও বেন স্টোকস। জো রুট ফিরে যান ফিফটি করে আর স্টোকস করেন ২৮ রান করে। শেষ দিকে স্যাম কুরানের ৩৫ রানের পরও ইংলিশরা অলআউট হয় ২৪৮ রানে। প্রোটিয়াদের হয়ে ৫ উইকেট নেন হেনড্রিক্স, দুটি করে উইকেট নেন নর্টজে, প্রেটোরিয়াস আর একটি উইকেট নেন প্যাটারসন।

সিরিজে ইতিমধ্যেই ২-১ ব্যবধানে এগিয়ে আছে সফরকারী ইংল্যান্ড।
আগামীকাল চতুর্থদিনের খেলা শুরু করবে প্রোটিয়ারা। তাদের সামনে ৪৬৬ রানের লক্ষ্য মাত্রা ছুঁড়ে দিয়েছে ইংল্যান্ড। জোহানসবার্গ টেস্ট ড্র হওয়ার সম্ভাবনার খুবই ক্ষীণ। আফ্রিকানদের সামনে জয় কিংবা পরাজয় যেকোন একটি অপেক্ষা করছে। আফ্রিকানদের সাথে সময় আছে পাক্কা দুইদিন আর হাতে ১০ উইকেট। আফ্রিকা এই টেস্টে জয় তুলে নিয়ে নিয়ে সিরিজ সমতায় ফিরতে পারবে তো? নাকি নিজেদের ঘরের মাঠে লজ্জাজনক সিরিজ পরাজয় বরণ করবে।

স্কোরকার্ড:

ইংল্যান্ড : ৪০০ & ২৪৮
দক্ষিন আফ্রিকা : ১৮৩

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »