প্রথমবারের মতো টেস্ট দলে লক্ষীপুরের ছেলে!

সাকিব শাওন »

মিরপুরে ২২ ফেব্রুয়ারী জিম্বাবুয়ের সাথে টেস্ট ম্যাচ অনুৃষ্ঠিত হবে। তবে এবার হোম অব ক্রিকেটে খেলা হবে সবুজ উইকেটে। যাঁর কারণে গতির ঝড় তোলা পেসারদের দায়িত্ব থাকবে সবথেকে বেশি। এ কারণেই টেস্ট দলে প্রথম বারের মতো ডাক পেয়েছেন গতির রাজা হাসান মাহমুদ। মূলত জিম্বাবুয়ে দলকে আঁতকে দিতেই এই পরিকল্পনা।

হাসান মাহমুদ সহ দলে রয়েছেন ৫ পেসার। এ পরিকল্পনা শুধু জিম্বাবুয়ে টেস্টেই নয় আসন্ন করাচি টেস্টের জন্য আগে থেকেই এই পরিকল্পনা সেরে নিচ্ছেন দল এমনটাই জানিয়েছেন প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদীন নান্নু।

এ’বছর ঢাকা প্লাটুনের হয়ে দারুণ বল করায় তাঁকে দলে সুযোগ দেওয়া হয়েছে। তাঁর বোলিং যে গতি আর সুইং রয়েছে সেজন্য বিসিবি সহ সব কোচদের নজরে চলে আসেন লক্ষীপুরের তরুণ এই পেসার। ঘন্টায় ১৪০ কি:মি বল করতে পারেন এই তরুণ। এমন এক বোলারের সন্ধানেই ছিলো বিসিবি। এইচপি দলে যখন সবাই ছিলো তখনই প্লান ছিলো জোরে যে বল করতে পারবে তাঁকে আমরা দলে নিবো। সেক্ষেত্রে আমরা ওকে বেঁচে নিয়েছি আগে ওর বল জোরে হলেও কিছুটা লাইনচ্যুত ছিলো কিন্তু বর্তমানে সে কামব্যাক করেছে যাঁর ফলে আমরা ওকে টেস্ট দলে নিয়েছি এমনটাই বলেছেন নান্নু।

গতির কথা চিন্তা করে আরেক স্পিড স্টার তাসকিন কে ২৯ মাস পরে টেস্ট দলে ডাকা হয়েছে। মূলত জিম্বাবুয়ে টেস্টে গতির ঝড় তোলা বোলারদের ই অগ্রাধিকার বেশি দেওয়া হয়েছে।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »