পাকিস্তানে সর্বোচ্চ নিরাপত্তা পাচ্ছে টাইগাররা।

কে এম আবু হুরায়রা »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

অন্য সব সিরিজের আগে সকল জল্পনা কল্পনা থাকে সিরিজের ফলাফল নিয়ে৷ তবে এবারের সিরিজে সবার একটাই সুর, সুস্থভাবে দেশে ফিরে আসুক টাইগাররা।নিরাপত্তা নিয়ে দোটানার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে পাকিস্তানে বাংলাদেশ ক্রিকেট দল। নিরাপত্তা জনিত সংশয়ে দেশেই থেকে গেছেন মুশিকুর রহিম। সর্বোচ্চ নিরাপত্তায় বরন করা হয়েছে তাদের। বাংলাদেশ থেকে পাকিস্তানে সরাসরি পাকিস্তানে কোন বিমান না থাকায় চার্টার্ড ফ্লাইটে করে পাকিস্তান গেছেন বাংলাদেশী খেলোয়াড়, কোচিং স্টাফ, কর্মকর্তা কর্মচারীসহ সাংবাদিকরা।

গতকাল রাত ৮ টায় দেশ ছাড়েন টাইগাররা। পাকিস্তানে পৌছে গতকাল ভোর রাতে। বেশ কড়া নিরাপত্তার ছাউনিতেই হোটেলে পৌঁছেছে টাইগাররা। একই শহরেই আগামীকাল পাকিস্তান সময় ২টায় মাঠে নামবেন টাইগাররা৷

নিরাপত্তা নিয়ে বিসিবির প্রধান নির্বাহী নিজামুদ্দিন চৌধুরী বলেন, ” আমরা সবসময়ই চেয়েছি ছোট সময়ের জন্য পাকিস্তানে যেতে। এ ব্যাপারে সরকারি ভাবেও নির্দেশনা ছিলো। আমরা সেটাই করেছি।”

বিসিবিসহ বিভিন্ন সূত্রে জানা যায় বাংলাদেশ দলের জন্য প্রেসিডেন্সিয়াল নিরাপত্তার ব্যাবস্থা করেছে পাকিস্তান। লাহোর পুলিশের ডিআইজি রাই বাবর জানান আগামীকাল ম্যাচে থাকছে কড়া নিরাপত্তা। ১০ হাজার পুলিশ মোতায়েন করছেন তারা।

লাহোর পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয় এতে ১৭টি সুপার পুলিশ ভিশন এবং ৪৮টি ডেপুটি সুপার পুলিশ ভিশন এই নিরাপত্তার দ্বায়িত্বে থাকবে। এতে থাকবে ১৩৪ জন ইনস্পেক্টর এবং ৫৯২ জন সাব অর্ডিনেট অফিসার।

লাহোর পুলিশের ডিআইজি জানান,” শুধু বাংলাদেশ দলকেই নয়। একই নিরাপত্তা থাকবে পাকিস্তানি খেলোয়াড়দেরও। ”

স্টেডিয়ামে যাওয়ার পথে থাকবে বাড়তি নিরাপত্তা৷ ২০০৯ এর পুনরাবৃত্তি চান না তিনি। ডিআইজি ববর সাইদ বলেন,” এখানে বিভিন্ন স্তরের নিরাপত্তার কথা ভাবছি আমরা।ভবনের ছাদগুলোতে স্নাইপার নিয়ে থাকবে আইন শৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনী। এতে থাকবে ডলফিন স্কোয়াড। যারা বাইকে করে টহল দিবে পুরো এলাকা৷ সাথে এলিট পুলিশ স্কোয়াড এবং পুলিশ রেস্পন্স টিম। “

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »