ধোনি ইস্যুতে অনড় আইসিসি

https://scontent.fdac4-1.fna.fbcdn.net/v/t1.0-9/36386236_2027432020601594_1928619179817041920_n.jpg?_nc_cat=104&_nc_eui2=AeFY40879vpUlXD3TvLuwunYiYPt9keMWugjnmsYPL9A2_cQ-azY1GmWWQy36LFNFzNLAU2kdDYB9vV9Qwdjt7cfxuFbw0DGkcoiJ24B4pOm6Q&_nc_ht=scontent.fdac4-1.fna&oh=926e9b4229d9f6e3ffd66fe5510e3767&oe=5D672D33 »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

২০১১ সালে মহেন্দ্র সিং ধোনির নেতৃত্বে বিশ্বকাপের ট্রফি উঁচিয়ে ধরে ভারত। ওই সময় ভারতীয় সেনাবাহিনী ধোনিকে খেতাব দেয় ল্যাফটেনেন্ট কর্ণেল হিসেবে। এরপর ভারতীয় আর্মিদের সাথে কিছুদিন ক্যাম্পও করেন তিনি। শুধু ধোনিই নয় ভারতের অন্যান্য ক্রিকেটাররাও যে তাদের দেশের সেনাবাহিনীদের প্রতি দেখান বাড়তি সম্মান সেটা বুঝা গিয়েছে বেশ আগেই। সম্প্রতি সেনাবাহিনীদের ক্যাপ পরেও মাঠে নামতে দেখা গিয়েছিল ধোনিদের।

তবে এবার ঘটলো ভিন্ন ঘটনা। উইকেটরক্ষক মহেন্দ্র সিং ধোনি তার হাতে গ্লাভসে লাগিয়েছেন ভারতীয় সেনাবাহিনীর ব্যাজ ‘বলিদান’। এই ব্যাজ কেবল ভারতের সেনাবাহিনীরাই ব্যবহার করতে পারে। ফলে আইসিসির পক্ষ থেকেও নাখোশ প্রস্তাব আনা হয়েছে।

আইসিসিকে ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের পক্ষ থেকে অনুরোধ করা হয়েছে ধোনি যেন এই গ্লাভস পরেই মাঠে নামতে পারে। অন্যদিকে ধোনির পক্ষে কথা বলছে ভারতের অভিনয় শিল্পী, রাজনৈতিক নেতা সহ দেশটির সেনাবাহিনী পর্যন্ত। তাছাড়া পুরো ভারত জুড়ে আইসিসিকে বয়কটের ঘোসনাও দিয়েছেন সামাজিক মাধ্যমে কেউ কেউ।

ভারতীয় ভক্তদের তোপের মুখে আইসিসি জবাব দিয়েছে। এক বিবৃতিতে আইসিসি জানায়, ‘আইসিসি টুর্নামেন্টের নিয়ম অনুসারে কোনো ক্রিকেটার তাদের ব্যক্তিগত লোগো বা বার্তা ব্যবহার করতে পারবে না জার্সিতে। ধোনির এমন কাণ্ড উইকেট্রক্ষকের নিয়মও ভঙ্গ করেছে’

ফলে এখানে একটা ব্যাপার স্পষ্ট যে ভারতীয় বোর্ডের পখ থেকে যে দাবি করা হয়েছিল তা নাকচ করে দিয়েছে আইসিসি। এবার ভারতীয় ভক্তরা কি করে সেটিই দেখার বিষয়।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »