দীর্ঘ ৭ বছর পর ওয়েস্ট ইন্ডিজকে হারাল আয়ারল্যান্ড

নিউজ ক্রিকেট ২৪ ডেস্ক »

 

তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে ৫ উইকেটে হারালো আয়ারল্যান্ড। এই ম্যাচে আয়ারল্যান্ডের পক্ষে অলরাউন্ড পারফর্ম করেছেন অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইন। এটি ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে আইরিশদের ইতিহাসে দ্বিতীয় ওয়ানডে জয়।

সাবিনা পার্কে টস জিতে আগে বোলিং করার সিদ্ধান্ত নেয় আয়ারল্যান্ড। প্রথম সাফল্য পেতে দশম ওভার পর্যন্ত অপেক্ষা করা লাগে আইরিশদের। দলীয় ৪৩ রানে ৩ উইকেট হারায় ওয়েস্ট ইন্ডিজ।
এরপর জোড়া আঘাত হানেন ম্যাকব্রাইন। টানা দুই ওভারে তিনি শিকার করেন কাইরন পোলার্ড ও রস্টন চেইজকে। শামারহ ব্রুকস করেন ৪৩ রান। ১১১ রানে ৭ উইকেট হারিয়ে দিশেহারা হয়ে যায় ক্যারিবিয়ানরা। অষ্টম উইকেটে রোমারিও শেফার্ডের সাথে ৩২ রানের জুটি গড়ে অকিল হোসেন বিদায় নিলে ১৪৩ রানে ৮ উইকেট হারায় সফরকারীরা।
নবম উইকেটে ৫৮ রানের জুটি গড়েন শেফার্ড ও ওডেন স্মিথ। ১৯ বলে ৪৬ রানের টর্নেডো ইনিংস আসে স্মিথের ব্যাট থেকে। তার এই বিধ্বংসী ইনিংসে ছিল দুইটি চার ও পাঁচটি ছক্কা। স্মিথের ঝড় থামান জশুয়া লিটল। ৪১ বলে ৫০ রান করা শেফার্ডকে বোল্ড করে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে অল-আউট করেন ম্যাকব্রাইন। ওয়েস্ট করে ২২৯ রান।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে বৃষ্টির বাঁধার মুখে পড়ে আয়ারল্যান্ড। অনেকক্ষণ খেলা বন্ধ থাকার পর বৃষ্টি আইনে আয়ারল্যান্ডের লক্ষ্য দাঁড়ায় ৩৮ ওভারে ১৬৮ রান। ৩৩ বল হাতে রেখেই সে লক্ষ্যে পৌঁছে যায় আইরিশরা। দুই ওপেনার উইলিয়াম পোর্টারফিল্ড ২৯ বলে ২৬ রান ও পল স্টার্লিং ১৫ বলে ২১ রান করেন। বলের পর ব্যাট হাতেও দলের জয়ে অবদান রাখেন ম্যাকব্রাইন। ৪৫ বলে করেন ৩৫ রান। এছাড়া অর্ধশতক হাঁকিয়ে দলের জয় নিশ্চিত করে মাঠ ছাড়েন হ্যারি টেক্টর। ৭৫ বলে অপরাজিত ৫৪ রান করেন তিনি।

৫ উইকেটের জয় পায় আয়ারল্যান্ড।৷ এই জয়ে সিরিজে এলো ১-১ সমতা। ২০১৫ সালের পর প্রথমবারের মতো ওয়ানডে ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে জয় পেল আইরিশরা।

সংক্ষিপ্ত স্কোর

ওয়েস্ট ইন্ডিজ ২২৯/১০ (৪৮ ওভার)
শেফার্ড ৫০, স্মিথ ৪৬, ব্রুকস ৪৩;
ম্যাকব্রাইন ৪/৩৬, ইয়ং ৩/৪২, লিটল ২/৪০।

আয়ারল্যান্ড ১৬৮/৫ (৩২.২ ওভার)
টেক্টর ৫৪*, ম্যাকব্রাইন ৩৫, পোর্টারফিল্ড ২৬, স্টার্লিং ৩৫;
অকিল ২/৫১।

আয়ারল্যান্ড ৫ উইকেটে জয়ী। (বৃষ্টি আইনে লক্ষ্য ৩৮ ওভারে ১৬৮ রান)

ম্যাচসেরা : অ্যান্ডি ম্যাকব্রাইন

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »