fbpx

তামিমের লাইভে না থাকার কারণ জানালেন সাকিব

নিউজ ডেস্ক »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

করোনার প্রকোপে যখন বাংলাদেশে লকডাউন চলছিল তখন ওয়ানডে অধিনায়ক তামিম ইকবালকে দেখা যায় ভিন্ন এক ভূমিকায়। মার্চ মাসে দেশের ক্রিকেট থমকে যাওয়াই ফেসবুক লাইভে ক্রিকেটারদের সঙ্গে আড্ডায় মাতেন তিনি। নামিদামি সব ক্রিকেটাররা সেই লাইভের অংশ নিলেও আসেননি সাকিব আল হাসান। 

 

এরপরই ভক্ত সমর্থকদের মনে উঁকি দিতে থাকে নানা প্রশ্ন। অনেকে মেনেই নিয়েছেন সাকিব-তামিমের বন্ধুত্বে ফাটল ধরেছে। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম থেকে শুরু করে ক্রিকেট মহলেও এ নিয়ে হয়েছে নানা আলোচনা। তবে এবার তামিমের সেই লাইভ আড্ডায় না আসার কারণ খোলাসা করেছেন সাকিব।

 

একাত্তর টেলিভিশনের সঙ্গে আলাপকালে জানিয়েছেন, পারিবারিক কারণে সে সময় তামিমের লাইভে সময় দিতে পারেননি। সেই সঙ্গে বাংলাদেশ এবং যুক্তরাস্ট্রের সময়ের ব্যবধানও বাধা হয়ে দাঁড়িয়েছিল সাকিবের জন্য।

 

সাকিব বলেন,”ওই সময় যেটা হয়েছিল যে আমার মাত্র দ্বিতীয় সন্তান পৃথিবীতে এসেছে। করোনার কারণে সে সময় আসলে সাহায্যের জন্য তেমন মানুষও পাওয়া যাচ্ছিলো না। তো সে সময় আমি সারারাত আমার মেয়ের দেখাশোনা করতাম। রাত ১০ টা থেকে ভোর ৬-৭টা পর্যন্ত। এরপর আমার শাশুড়ি বা স্ত্রী আসত। সারারাত জেগে থেকে ওই সময়টাতে লাইভে আসা আমার জন্য একটু কঠিন ছিল। ওদের সময় ছিল ৮ বা ৯টা। সে সময় আমি ঘুমে থাকতাম কারণ আমার ওখানে তখন সকাল। সে সময় আমার জেগে থাকার কোন উপায় ছিল না। প্রথম ৩ মাস এভাবেই কেটেছিল আমার।”

 

তামিমের ফেসবুক আড্ডায় দেশি ক্রিকেটাররা ছাড়াও এসেছিলেন ফাফ ডু প্লেসি, ভিরাট কোহলি, রোহিত শর্মা, কেন উইলিয়ামসনদের মতো বড় বড় তারকা ক্রিকেটাররা। এমনকি সর্বশেষ পর্বে তামিমের সঙ্গে ছিলেন মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, মুশফিকুর রহিম এবং মাশরাফি বিন মর্তুজা। ছিলেন না শুধু সাকিবই।

 

সে সময় সাকিবের অনুপস্থিতি প্রসঙ্গে তামিম বলেছিলেন,”তার (সাকিব) সঙ্গে প্রায় ৭/৮ দিন আগে যোগাযোগ করেছিলাম। ৫ জন এক হতে চেয়েছিলাম শেষ শো’তে। কিন্তু ব্যক্তিগত কারণে যোগ দিতে পারবে না সাকিব।”

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »