জেদের বসেই হিরো হতে চেয়েছিলেন সাইফউদ্দিন

https://scontent.fdac4-1.fna.fbcdn.net/v/t1.0-9/36386236_2027432020601594_1928619179817041920_n.jpg?_nc_cat=104&_nc_eui2=AeFY40879vpUlXD3TvLuwunYiYPt9keMWugjnmsYPL9A2_cQ-azY1GmWWQy36LFNFzNLAU2kdDYB9vV9Qwdjt7cfxuFbw0DGkcoiJ24B4pOm6Q&_nc_ht=scontent.fdac4-1.fna&oh=926e9b4229d9f6e3ffd66fe5510e3767&oe=5D672D33 »

এজবাস্টনে ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ হেরেই সব শেষ। সেমি ফাইনালের আশায় গুঁড়ে বালি হয়ে গেছে বাংলাদেশের। এখন পাকিস্তানের বিপক্ষে যে ম্যাচটি আছে সেটি কেবলই আনুষ্ঠানিকতার। ভারতের বিপক্ষে ম্যাচ হারলেও শেষ পর্যন্ত ব্যাট হাতে লড়াই চালিয়ে গিয়েছিলেন সাইফউদ্দিন।

দলকে জয়টা হয়তো এনেই দিতেন যদি একজন যোগ্য সঙ্গী পেতেন সাথে। সাইফউদ্দিনকে একপ্রান্তে রেখেই অপরপ্রান্তে থাকা ব্যাটসম্যানরা একে একে বিদায় নেন সাজঘরে। সাইফউদ্দিনের চোখেমুখে যে আত্মবিশ্বাস কাজ করছিল সেটা সহজেই অনুমান করা যাচ্ছিল যখন তিনি মাঠে ছিলেন।

ম্যাচ শেষে সাইফউদ্দিন জানান জেদ করেই ম্যাচের হিরো হতে চেয়েছিলেন তিনি। ‘বড় দলের বিপক্ষে আমি নাকি ইনজুরির অজুহাত দেখেয়েছি এমন একটা খবর প্রকাশিত হয়েছিল কয়েক দিন আগে। এই ব্যাপারটাই আমার মধ্যে জেদ হিসেবে কাজ করেছিল তাই ম্যাচ জিতিয়ে হিরো হতে চেয়েছিলাম।’

‘এই ম্যাচে মাঠে নামার পর থেকেই ইচ্ছা ছিল ম্যাচ জিতিয়ে ওঠার। আমার বিপক্ষে যেসব কথা হচ্ছে সেগুলো যেন ভুল প্রমাণ করতে পারি। আমরা খেলোয়াড়রা কিছু বলতে পারি না। তাই জবাবটা মাঠেই দিতে হয়। যা চেষ্টা করে গেছি। দলকে জিতিয়ে আসতে চেয়েছিলাম। আজ (গতকাল) ব্যাটে-বলে ভালো হচ্ছিল। টুর্নামেন্ট থেকে বিদায় নিয়েছি। অবশ্যই খারাপ লাগার মত একটি দিন।’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »