চট্টগ্রামের কাছে হেরে ঢাকার বিদায়

কে এম আবু হুরায়রা »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বঙ্গবন্ধু বিপিএল এর প্রথম এলিমিনেটরে দিনের প্রথম ম্যাচে মুখোমুখি হয় ঢাকা প্লাটুন এবং চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স। টসে জিতে বল করার সিদ্ধান্ত নেন চট্টগ্রামের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ।

জয়ের জন্য ১৪৫ রানের লক্ষ্যে ব্যাট করতে নেমে দুর্দান্ত শুরু করে চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্সের দুই উদ্বোধনী ব্যাটসম্যান ক্রিস গেইল ও জিয়াউর রহমান। একপ্রান্তে গেইল ধীরগতির শুরু করলেও অন্য প্রান্তে আগ্রাসী শুরু করেন জিয়াউর রহমান। আগ্রাসী হয়ে উঠা জিয়াউর রহমানকে ফেরান স্পিনার মেহেদী হাসান। ১২ বলে ২৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন জিয়াউর রহমান।

এর পরে ক্রিস গেইল ও ইমরুল কায়েস মিলে গড়েন ৫০ রানের জুটি। ৩ ছয় ও ১ চারের সাহায্যে ২২ বলে ৩৩ রানের ইনিংস খেলে সাজঘরে ফিরেন ইমরুল। ইমরুলের বিদায়ের পর বিদায় নেন ধীরগতিতে খেলতে থাকা ক্রিস গেইলও। শাদাব খানের বলে লেগ সাইডে মাশরাফির হাতে ক্যাচ তুলে দেন গেইল। ৪৯ বলে ৩৮ রান করেন ক্রিস গেইল।

শেষ দিকে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের ১৪ বলে ৩৪ রানের ঝড়ো ইনিংসে ঢাকাকে ৭ উইকেটে হারায় চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স।

এর আগে টসে হেরে ব্যাটিংয়ে নেমে শুরু থেকেই এলোমেলো প্লাটুনের ব্যাটসম্যানরা৷ ইনিংসের তৃতীয় ওভারের শেষ বলে রুবেল হোসাইনের দুর্দান্ত ডেলিভারিতে বোল্ড হয়ে সাজঘরে ফেরেন তামিম ইকবাল।

রান খড়ায় ভুগতে থাকা এনামুল হক বিজয় নামেন ৩ নং পজিশনে। তবে ব্যাটিং পজিশনের বদল হলেও বদল হয়নি পারফর্মেন্সের। যথারীতি আউট হয়েছেন শূন্য রানে। পরের ওভারে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদের বলে রায়াদ এমরিটের হাতে তালুবন্দি হয়ে শূন্য রান করেই ফেরের লুইস রেইস।

চতুর্থ উইকেট জুটিতে মেহেদী হাসান থিতু হওয়ার চেষ্টা করলেও মাঠে টিকতে পারেননি বেশিক্ষণ। দলীয় ৪৩ রানে রায়াদ এমরিটের বলে আসিলা গুনারত্নের হাতে ক্যাচ দিয়ে ফেরেন মেহেদী। পরের বলেই আবার রায়াদ এমরিট ফেরান জাকির আলীকেও।

সতীর্থদের যাওয়া আসার মিছিল দেখছিলেন তামিম ইকবালের সাখে উদ্বোধনী ব্যাাটিং করতে নামা মুমিনুল হক। তবে ১১তম ওভারে মুমিনুলকে ফেরান রায়াদ এমরিট।

দলীয় ৬০ রানে আসিফ আলী ফিরে গেলে দলের হাল ধরেন থিসারা পেরেরা এবং সাদাব খান মিলে দলকে এগিয়ে নিয়ে যান একটি সম্মানজনক রানের দিকে।

১৮তম ওভারে থিসারা পেরেরা আউট হলে ইঞ্জুরি আক্রান্ত মাশরাফি নেমে একপ্রান্ত সাদাবকে সঙ্গ দেন। শেষের ২ ওভারে ৩৯ রান নেন সাদাব খান। এবং ৪১ বলে ৬২ রানে অপরাজিত থাকেন তিনি।

স্কোরকার্ড:

ঢাকা প্লাটুন : ১৪৪/৮ ( ওভার ২০) শাদাব ৬৪, মুমিনুল ৩১, এমরিদ ৩/২৩, নাসুম ২/১১

চট্টগ্রাম চ্যালেঞ্জার্স : ১৪৭/৩ ( ওভার ১৭.৪) গেইল ৩৮, রিয়াদ ৩৪* ইমরুল ৩২, শাদাব ২/৩২

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »