fbpx

কি এমন দোষ করলেন তাসকিন-ফরহাদ রেজা?

নিউজ ক্রিকেট ২৪ ডেস্ক »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

বিশ্বকাপের ১৫ সদ্যসের দলে তাসকিন আহমেদ জায়গা না পাওয়ায় অবাক হয়েছেন পুরো দেশের ক্রিকেট ভক্তরা। আয়ারল্যান্ড ট্রাইনেশন সিরিজের জন্য ঘোষণা করা হয় ১৭ সদস্যের দল। কিন্তু হুট করে ১৭ সদস্য থেকে বেড়ে গিয়ে দল হয়ে গেল ১৯ সদস্যের। ইনজুরির অজুহাতে বিশ্বকাপ দল থেকে বাদ পড়া তাসকিনের সাথে ডাক আসে অনক দিন ধরে ঘরোয়া ক্রিকেটে ধারাবাহিকভাবে পারফর্ম করে যাওয়া ফরহাদ রেজার। কিন্তু কি কারণে তাদেরকে হুট করে দেশ থেকে উড়িয়ে নেওয়া হল তার সঠিক কারণ এখনো কেউ জানে না। বিশ্বকাপের পরে শ্রীলঙ্কা সফরেও ছিলেন তাসকিন আর ফরহাদ রেজা। কিন্তু আবারো ট্রাইনেশন সিরিজের মত পিকনিক সফরে দলের সাথে গিয়ে শ্রীলঙ্কা ঘুরে আসেন এই দুজন। কিন্তু এভাবে স্কোয়াডে রেখে বিদেশ ঘুরিয়ে আনার কারণ কি?

আফগানিস্তানের বিপক্ষে এক মাত্র টেস্টের স্কোয়াডে ছিলেন তাসকিন। ধরলাম উইকেট বিবেচনায় দলে রাখা হয় নি তাসকিনকে। কিন্তু দেশের মাটিতে টি২০ সিরিজের জন্য প্রথম ২ ম্যাচের স্কোয়াডেও জায়গা পান নি তাসকিন বা রেজা কেউই।

শ্রীলংকা সফরেও দেখা গেছে প্লেয়ারদের টানা অফফর্ম এবং ব্যাটিং, বোলিং এবং ফিল্ডিং তিন বিভাগেই স্বাগতিকদের কাছে অসহায় আত্মসমর্পণ করতে। কিন্তু তারপরেও দলে তেমন কোন পরিবর্তন আসছে না। আর আসলেও তরুণ কয়েকজনকে দলে ডাকা হচ্ছে। তবে তারাও ম্যাচ খেলার সুযোগ পাবেন কি না জানেন না কেউই। আর তাসকিন আর রেজার মত অভিজ্ঞ ক্রিকেটারদের কেনই বা ম্যাচ না খেলিয়ে আবার বাদ দেওয়া হচ্ছে এমনটাও ধারণার বাইরে।

পুরো বিশ্বকাপে দেখা গেছে ইনজুরি আর শতভাগ ফিট না থাকার পরেও খেলে গেছেন সাইফুদ্দিনের মত ক্রিকেটার। মানলাম প্রেক্ষাপট ভিন্ন হওয়ায় তাসকিন রেজাদের বিবেচনা করা হয় নি। তাই বলে ম্যাচ না খেলিয়েই আবার দল থেকে বাদ দেওয়ার পেছনে কি এমন কারণ লুকিয়ে আছে?

কয়েক দিন আগেই নতুন পেস বোলিং কোচ শার্ল ল্যাঙ্গেভেল্ট বলেছেন, তাসকিনে সন্তুষ্ট তিনি। কিন্তু তাসকিনকে ম্যাচ না খেলিয়েই আবার কিভাবে তার পারফরম্যান্সে ঘাটতি খুঁজে পাওয়া যায় সেটা আমাদের জানা নেই। জানা নেই কেন এত বছর ধরে ঘরোয়া ক্রিকেটে পারফর্ম করা ফরহাদ রেজা জাতীয় দলের হয়ে একটি ম্যাচ খেলা সুযোগ পান না।

সবই মেনে নেওয়া যেত যদি দলের সবাই পারফর্ম করতে পারতেন আর দলকে ভালো ফল এনে দিতে পারতেন। যেখানে বারবার একের পর এক ক্রিকেটার সুযোগ পেয়ে ব্যর্থ হচ্ছেন তবুও কেনই তাদেরকে দল থেকে বাদ দেওয়া হচ্ছে না আর কেনই বা প্রতি ম্যাচে তাদের নিয়েই একাদশ সাজানো হচ্ছে এমন প্রশ্নের উত্তর আমাদের জানা নেই। হয়তো তাসকিন-রেজারা এমন কোনো গুরুতর অপরাধ করে বসেছেন যার জন্য দলের বাইরে যেতে মাঠের ক্রিকেটের প্রয়োজন হয় না, আর পারফরম্যান্স কোনো প্রভাব ফেলতে পারে না।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »