কনিষ্ঠতম সিএবি প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেবেন অভিষেক ডালমিয়া

সাজিদা জেসমিন »

গত বুধবার বিশেষ সভায় অভিষেক ডালমিয়াকে প্রেসিডেন্ট এবং স্নেহাশিস গাঙ্গুলিকে সেক্রেটারি পদে নির্বাচিত করে ক্রিকেট অ্যাসোসিয়েশন অব বেঙ্গল (সিএবি) এ-র রক্ষী পরিবর্তন করা হয়েছে।

দুজনেই বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়েছেন। অভিষেককে সেক্রেটারি পদ থেকে পদোন্নতি দেওয়া হয়েছে এবং স্নেহাশিস পূর্বে এপেক্স কাউন্সিলের প্রাক্তন খেলোয়াড়দের প্রতিনিধি ছিলেন।

অভিষেক তার পিতার স্থানে উত্তরসূরী হয়েছিলেন, যে চেয়ারে জগমোহন ডালমিয়া ১৯৯২-৯৩ থেকে ২০০৬ এবং ২০০৮-০৯ থেকে ২০১৫ সালে মৃত্যুবরণের আগপর্যন্ত দায়িত্বরত ছিলেন।

অভিষেকের তাৎক্ষণিক পূর্বসূরি ছিলেন সৌরভ গাঙ্গুলি, যিনি বিসিসিআই প্রেসিডেন্টের পদে বহাল হওয়ার পর সেই দায়িত্ব ছেড়ে দেন।

৩৮ বছর বয়সী অভিষেক ডালমিয়া সিএবি এ-র সর্বকনিষ্ঠ প্রেসিডেন্ট। তিনি গণমাধ্যমে বলেন – ‘এটি আমার জন্য একটি আবেগময় মুহূর্ত। তবে পূর্বে দায়িত্বে থাকা দুর্দান্ত ব্যক্তিত্বের প্রেসিডেন্টের সাথে আমাকে তুলনা করাটা বোকামি হবে।’

সৌরভের বড় ভাই স্নেহাশিস সিএবি কার্যকরী কমিটির সদস্য হওয়ার পূর্বে ২০০৭-০৮ সালে একজন অফিসার ছিলেন। সাবেক এ-ই ব্যাটসম্যান বলেন- ‘২০১৮ সালে ফেরার পর আমি অ্যাসোসিয়েশনকে টিম হিসেবে আরো বেশি কাজ করতে দেখেছি।’

অভিষেকের ২২মাস মেয়াদী কার্যক্রম শুরু হয়েছে। অফিসের প্রথম দিনেই নতুন প্রেসিডেন্ট তার মিশন সম্পর্কে কিছু ধারণা দেন, যা সিএবি দ্রুত বাস্তবায়ন করবে বলে সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় ছিলো ইডেন গার্ডেন্স উন্নতকরণে পদক্ষেপ গ্রহণ। তিনি বলেন – ‘২০২১ এবং ২০২৩ যে দু’টি বিশ্বকাপ ভারতে আয়োজিত হবে তার কারণে আমাদের ক্লাব হাউজকে নতুন করে সাজাতে হবে। সেখানে বৈশ্বিক টুর্নামেন্ট চলাকালীন সুযোগ-সুবিধার জন্য ৪টি ড্রেসিং রুম করার পরিকল্পনা রয়েছে।’

ক্লাবের অভ্যন্তরীণ সুযোগ-সুবিধা সমূহ আগামী বছরের মধ্যে বাস্তবায়ন করা সম্ভব হবে বলে ধারণা করা হচ্ছে এবং জেলাপর্যায়েও একইরকম সুযোগ-সুবিধা থাকবে। তিনি বলেন – ‘ খেলোয়াড়দের পাশাপাশি পরিচালনা কর্মীদের জন্যও আচরণবিধি নিয়ে নিয়মকানুন থাকবে। এছাড়াও বয়স জালিয়াতি রোধের জন্য আমাদের বয়স-যাচাইকরণ কক্ষ থাকবে।’

প্রেসিডেন্ট আরো বলেন অ্যাসোসিয়েশন পরিকল্পনা করছে একটি আট দলভিত্তিক মহিলা ক্লাব লিগ আয়োজন করার। যাই হোক, আইপিএল চলাকালীন এমন একটি প্রস্তাবনা যদিওবা গৃহীত হতে পারে বলে তেমন একটা মনে হচ্ছে না। অভিষেক বলেন – ‘আমরা শীর্ষস্থানীয় ক্লাবগুলো নিয়ে একটি বেঙ্গল ক্রিকেট লিগ করার চেষ্টা করছি।’

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »