ওয়েস্ট ইন্ডিজের সরাসরি বিশ্বকাপে খেলা ঘোর শঙ্কায়!

নিউজ ক্রিকেট ২৪ ডেস্ক »

 

ঘরের মাঠে নিউ জিল্যান্ডের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরুর আগে ৮০ পয়েন্ট নিয়ে সুপার লিগে সপ্তম স্থানে ছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। ১৩ দলের সুপার লিগে এটাই তাদের শেষ সিরিজ। কিউইদের বিপক্ষে তারা হেরে যায় ২-১ ব্যবধানে।

সিরিজের প্রথম ম্যাচটি জিতে ওয়েস্ট ইন্ডিজের পয়েন্ট হয়েছিল ৯০। পরের দুই ম্যাচেই হেরে যায় তারা। এর মধ্যে শেষ ম্যাচে মন্থর ওভার রেটের কারণে কাটা পড়ে তাদের ২ পয়েন্ট। ৮৮ পয়েন্ট নিয়ে এখনও অবশ্য তারা সাত নম্বরেই আছে। নেট রান রেট -০.৭৩৮।

স্বাগতিক ভারত ও সুপার লিগের অন্য শীর্ষ সাত দল সরাসরি খেলবে ২০২৩ বিশ্বকাপে। ১০ দলের আসরে বাকি দুটি দল আসবে বাছাইপর্ব থেকে।

আয়ারল্যান্ড বর্তমানে ৬৮ পয়েন্ট নিয়ে নবম স্থানে আছে। আগামী বছর ঘরের মাঠে বাংলাদেশের বিপক্ষে তিন ম্যাচের সিরিজের দুটিতে জিতলে আইরিশরা ছাড়িয়ে যেতে পারে ওয়েস্ট ইন্ডিজকে। কারণ, নেট রান রেটে ক্যারিবিয়ানদের চেয়ে তারা ভালো অবস্থানে আছে, -০.৩৮২।

ওয়েস্ট ইন্ডিজের নিচে আছে অস্ট্রেলিয়া (৭০ পয়েন্ট নিয়ে অষ্টম), শ্রীলঙ্কা (৬২ পয়েন্ট নিয়ে দশম) ও দক্ষিণ আফ্রিকা (৪৯ পয়েন্ট নিয়ে ১১তম)। তবে সুপার লিগে এই তিন দলের এখনও একাধিক সিরিজ বাকি। অস্ট্রেলিয়ার বাকি আছে ১২ ম্যাচ, শ্রীলঙ্কার ৬টি, দক্ষিণ আফ্রিকার ১১টি। তাই ওয়েস্ট ইন্ডিজকে টপকে যাওয়ার ভালো সম্ভাবনা আছে তাদের।

সেক্ষেত্রে ১৯৭৫ ও ১৯৭৯ বিশ্বকাপ জয়ীদের তখন খেলতে হবে আগামী বছরের জুনে জিম্বাবুয়েতে অনুষ্ঠেয় বাছাইপর্বে।

রেকর্ড পাঁচবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়া তো ক্যারিবিয়ানদের ছাড়িয়ে যেতে পারে শিগগিরই। ১২ নম্বরে থাকা জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে ঘরের মাঠে অস্ট্রেলিয়ার তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজ শুরু হবে আগামী ২৮ অগাস্ট।

সুপার লিগ থেকে সরাসরি বিশ্বকাপে উঠতে ব্যর্থ হওয়া পাঁচ দলকে খেলতে হবে বাছাইপর্ব। ১০ দলের বাছাইপর্বে তাদের সঙ্গে যোগ দেবে আইসিসি ক্রিকেট বিশ্বকাপ লিগ-২ এর শীর্ষ তিন দল ও বিশ্বকাপ বাছাই প্লে-অফের শীর্ষ দুই দল। সেখান থেকে মূল টুর্নামেন্টের টিকেট পাবে দুই দল।

গতবার বাছাইপর্ব খেলেই ২০১৯ সালের ইংল্যান্ড বিশ্বকাপে জায়গা পেয়েছিল ওয়েস্ট ইন্ডিজ। সুপার লিগের পয়েন্ট টেবিলের বিবেচনায় এবারও সেই পথেই দলটি।

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »