একটা দুঃখ এখনো আছে ওয়াকার ইউনিসের

নিউজ ডেস্ক »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সবার জীবনেই কোন না কোন বিষয় থাকে যেটা সারাজীবনই ভেতরে ভেতরে ঠিকই পোড়াই। হয়তো এই পোড়ার ক্ষতটা থাকে সারা জীবনই। তেমনি জীবনের অন্তিম দিন পর্যন্ত এক কষ্ট কুড়ে কুড়ে খাবে পাকিস্তানের সাবেক ফাস্ট বোলার ও অধিনায়ক ওয়াকার ইউনিসকে।

পাকিস্তানে তাদের ইতিহাসে একবারই শিরোপা জয় করেছিলো সেটা ১৯৯২ সালে। সম্মান কিংবা গৌরবের সেই শিরোপা জয়ের অন্যতম গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রাখার কথা ছিল ওয়াকারেরও। এমনকি বিশ্বকাপ দলেও ছিলেন। কিন্তু ভাগ্য হয়তো তাকে সহায়তা করেনি। যার কারণে বিশ্বকাপ শুরুর সপ্তাহ খানেক আগে অনুশীলনে চোট পেয়ে স্বপ্নের বিশ্বকাপ দল থেকে ছিটকে পড়েন এই সাবেক ফাস্ট বোলার। পাকিস্তান ক্রিকেট ইতিহাসে সেরা বোলারের তকমা থাকার পরেও বিশ্বকাপ জয়ের সাথে দলে থাকতে না পারাটা বেদনার বড় অসহ্য ওয়াকারের কাছে।

সম্প্রতি এক পডকাস্টে নিজের এই অসহায়ত্বের কথা জানিয়েছেন ওয়াকার, ‘আমার জন্য সময়টা খুব কষ্টের ছিল। হঠাৎ করে চোট পেয়ে গেলাম। পিঠে স্ট্রেস ফ্র্যাকচার হয়ে গেলো। বলা চলে একদমই বিশ্বকাপ শুরু হওয়ার আগ মুহূর্তে। ওই চোটটা এতটাই ভয়ংকর রূপে ছিল যে আমি অনেক দিন ঠিকমতো দাঁড়াতেই পারিনি।’

বর্তমান পাকিস্তান ক্রিকেট দলের বোলিং কোচের কাছে সেই দূর্বিসহ ঘটনায় জীবনের সবচেয়ে দুঃখের মুহূর্ত। ওয়াকার আরো বলেন, ‘আমি তখন আমার বোলিং ক্যারিয়ারের ফর্মের তুঙ্গে ছিলাম। খুব ভালো বল করছিলাম। পাকিস্তান সেইবার বিশ্বকাপ জিতলো তবে আমি দলে ছিলাম না। গৌরবের মুহুর্তটা মাঠে থেকে উপভোগ করতে পারছিলাম না। এটা আমাকে সারাজীবন পীড়া দিয়ে যাবে।’

দেশের হয়ে ৮৭ টেস্ট ৩৭৩ উইকেট আর ২৬২ ওয়ানডেতে যথাক্রমে ৪১৬ উইকেট নিয়ে ওয়াকার ঠিকই নিজেকে নিয়ে গিয়েছেন সেরাদের কাতারে।

নিউজক্রিকেট/শাওন

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »