একজন সালাউদ্দিন ও তার ব্যক্তিগত অভিমত

নিউজ ক্রিকেট ২৪ ডেস্ক »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

জাতীয় দলের যেকোনো ক্রিকেটার বিশেষ করে সাকিব-তামিম-মুশফিকদের খারাপ সময় এলেই সালাউদ্দিনেই একমাত্র ভরসা খুঁজে পান তারা। নিজেদের খারাপ সময়ে, স্মরণ করলেই সালাউদ্দিন স্যারকে পাশে পেয়ে যান পুরোনো শিষ্য সাকিব-তামিমরা। আর এতে সালাউদ্দিনকে কেউ কেউ জাতীয় দলের ক্রিকেটারদের দুঃসময়ের গুরুও বলে থাকে। তামিমের রানে ফেরা, বাংলাদেশকে নিয়ে ভারত সফরে প্রত্যাশা ও ঘরোয়া ক্রিকেট নিয়ে আলোচনায় গত ১৭ অক্টোবর নিউজক্রিকেট২৪ এর সাথে একান্ত সাক্ষাৎকারে মুখোমুখি হন তিনি।

★ আসন্ন ভারত সফরে বাংলাদেশকে নিয়ে আপনি কতটা আশাবাদী?

সালাউদ্দিন : ভারতের মত একটি অভিজ্ঞ দলের বিপক্ষে বড় আশা আসলে করা যায় না। আমার মনে হয় যে ভারতের বিপক্ষে টেস্ট ম্যাচ জয়ের মত অবস্থা আমাদের এখনো তৈরী হয় নি। আমরা যেন ওদের বিপক্ষে ভালো ক্রিকেট খেলতে পারি এটাই আমার আশা। বিশেষ করে আমাদের ব্যাটসম্যান যারা আছে তারা যেন প্রত্যাশা পূরণ করতে পারে এটাই চাওয়া আমার। ভারত এমন একটি দল যারা ডে বাই ডে প্রতিটা সেক্টরে উন্নতি করছে। তাদের ব্যাটিং ডিপার্টমেন্ট অনেক ভালো, তাছাড়া বোলিং, ফিল্ডিংও দেখার মত। তাদের তুলনায় আমরা এখনো এতটা শক্তিশালী না। টেস্টে আমাদের বোলিং এখনো দুর্বল। নতুন যারা আছে তাদেরকে ভালো করতে হবে। আমার মনে হচ্ছে নতুনরা যেভাবে সুযোগ পাচ্ছে সেই তুলনায় এখনো নিজেদের মেলে ধরতে পারে নি। সাকিব -তামিম-মুশফিক-রিয়াদ এই ৪ জনের উপরে নির্ভর না করে নতুনদের পারফর্ম করতে হবে নিজেদের জায়গা থেকে। আমার আশা এটাই, ভারতের বিপক্ষে টেস্টে বাংলাদেশ যেন ভালো ফাইট করে।

★ আগামী বছরে টি-২০ বিশ্বকাপে বাংলাদেশের সম্ভবনা কতটুকু দেখছেন?

সালাউদ্দিন : টি-২০ ফরম্যাটে ভালো দল হতে আমাদের আরো সময় লাগবে। এখানেও আমি বলবো এই ফরম্যাটে আমাদের বোলিংটা এতটা ভালো না। এই ফরম্যাটটাই এমন যে এখানে বিশেষ কিছু বোলারের দরকার হয় যারা ম্যাচ বের করতে পারে। কিন্তু আমাদের এমন বোলার নেই। এই জায়গায় আমাদের আমাদের কাজ করতে হবে। একইসাথে ব্যাটিংয়ে পাওয়ার হিটিং ব্যাটসম্যান তৈরী করতে হবে। বিশ্বকাপে আমরা কি করলাম এটার চেয়েও বড় কথা, আমাদের এবছর যে টি২০ টিম আছে একবছর পরে যেন আমাদের টিমটা এর চেয়েও অনেক ভালো হয়। এদিক চিন্তা করে আগালে আমার মনে হয় আমরা ভালো দলে পরিণত হবো।

★ বয়সভিত্তিক দলের কোচিং করানোর কোনো পরিকল্পনা আছে আপনার?

সালাউদ্দিন : আসলে ওভাবে আমি কোনো আমন্ত্রণ পাই নি তাই চিন্তাও করা হয় নি। আমাকে চাইলে আমি চিন্তা করে দেখবো।

★ হঠাৎ যদি জাতীয় দলের কোচ হওয়ার জন্য অফার আসে?

সালাউদ্দিন : আসলে এটা নির্ভর করে বোর্ড যদি আমাকে চায়। নিজে নিজে ভাবলে তো আর হবে না। সবাই তো চায় জাতীয় দলের জন্য কাজ করতে। আমি কোন রোলে যাচ্ছি তার উপরেও নির্ভর করে।

★ আমাদের পাইপলাইনের ক্রিকেটারদের নিয়ে আপনি সন্তুষ্ট?

সালাউদ্দিন : আমাদের ক্রিকেট অনেক ফেমাস এটা ঠিক। কিন্তু আমাদের তরুণ ক্রিকেটারদের যা দেওয়া দরকার আমরা হয়তো সেটা এখনো দিতে পারছি না। এই জায়গাগুলোতে আমাদের কাজ করা উচিত। একটা প্রতিভা আসলে সে এক কিছু করতে পারে না, তার আশেপাশেও প্রতিভাবান কিছু মানুষের প্রয়োজন হয়। আমার মনে হয় আমাদের তরুণ ক্রিকেটারদের স্বপ্নে একটু সমস্যা হচ্ছে। তারা সাকিব-তামিমের থেকে বড় ক্রিকেটার হওয়ার স্বপ্ন দেখে না। আসলে তরুণ ক্রিকেটারদের দেখে আমার মনে হয়েছে আসলে তাদের স্বপ্নটা অনেক ছোট। যখন আপনি বড় চিন্তা করতে পারবেন না তখন বেশি দূরে যাওয়া সম্ভব না। আমার মনে হয় তরুণদের এই স্বপ্ন দেখানোটা জরুরী যে তোমরা সাকিব-তামিমের চেয়েও বড় ক্রিকেটার হতে পারবা। এমন চিন্তায় আগালে ভালো ক্রিকেটার বের হয়ে আসবে। আসলে একটা দেশের ক্রিকেটার দিয়েই সব হয় না, এর পেছনে বিশেষ বিশেষ কিছু কাজ করতে হয় উন্নতির জন্য। ধরেন আজ একটা প্রতিভাবান ছেলে আসছে এখন আমাদের উচিত তাকে পরিচর্যা করা। কারণ পরিচর্যা না করলে সে ভালো পারফর্ম করতে পারবে না।

★ আমরা অনেক দিন ধরেই দেখে আসছি বাংলাদেশের ক্রিকেটারদের খারাপ সময়ে আপনি পাশে দাঁড়ান। কয়েকদিন আগে দেখলাম তামিম ইকবালকে নিয়ে আলাদাভাবে কাজ করেছেন। আপনার কি মনে হয় তামিম ইকবাল কি নিজের চেনা রূপে ফিরে আসতে পারবেন?

সালাউদ্দিন : আমার সাথে তামিমের যেটা হয়েছে এটা আসলে আমাদের রুটিন ওয়ার্ক। সাধারণত আমরা কিছু দিন পরে পরেই একসাথে কাজ করি। আমি ব্যক্তিগত ভাবে তামিমকে নিয়ে চিন্তিত না। তামিম অনেক দিন ধরে ক্রিকেট খেলছে, আমার থেকেও তামিম ভালো জানে কিভাবে ফিরে আসতে হবে। তাই আমি মনে করি তামিমকে নিয়ে চিন্তা করার কিছু নেই।

★ আগামী বিপিএলের কাঠামো নিয়ে আপনার মতামত কি? কয়েকদিন আগে সিদ্বান্ত আসলো প্রতিদলে একজন লেগ স্পিনার ও ১৪০ গতির বোলার বাধ্যতামূলক। এটা নিয়ে আপনার অভিমত কি?

সালাউদ্দিন : আসলে বোর্ড চায় আমাদের ১৪০ গতির বোলার ও লেগ স্পিনার খুঁজে বের করতে হবে, এটা অবশ্যই ভালো সিদ্বান্ত। একটা দেশের ক্রিকেট শুধু প্লেয়ার দিয়ে হয় না। আপনার লোকাল কোচের মান ভালো করতে হবে। একটা ছেলে যখন বয়সভিত্তিক ক্রিকেটের মধ্যে দিয়ে উঠে আসে ওই ছেলেদের নিয়ে লোকাল কোচ কাজ করে। তাই লোকাল কোচের মান ভালো না হলে আপনি আন্তর্জাতিক প্লেয়ার পাবেন না। কোচিং স্টাফের মান যত ভালো হবে একটা প্রতিভাবান ক্রিকেটার ততোই প্রতিশ্রুতিশীল হবে। আসলে কেবল প্লেয়ার না, এখানে কাঠামোরও ব্যাপার আছে। ফিজিও, ট্রেনার সবাই যদি ভালো মানের হয় তখন প্লেয়ারও ভালো বের হবে। তাই আমি মনে করি এটা খুব একটা ভালো সিদ্বান্ত না। এটা ভাবতে পারেন দেশে ভালো ফিজিও, ট্রেনার নেই। কিন্তু আমি খুব কাছ থেকে যাদের দেখেছি তারা এতটা খারাপ না এবং অনেক ভালো ফিজিও, ট্রেনারও আছে। আমি মনে করি তাদের সুযোগ দেওয়া উচিত। আপনি যেমন প্লেয়ারদের ভালো চিন্তা করছেন যেহেতু তাই আপনার উচিত অবশ্যই এদের দিকেও নজর রাখা। এরাই কিন্তু অনেক বড় বড় প্লেয়ার হ্যান্ডেল করেছে। আমার উচিত তাদেরকে দিকেও নজর দেওয়া। অন্য দেশে যদি নিজস্ব ট্রেনার কাজ করে তবে আমরা কেন পারবো না। তাই আমি মনে করি প্লেয়ারদের সাথে করে সব কিছুর দিকেই নজর দেওয়া উচিত তবেই দেশের ক্রিকেটের উন্নতি হবে এবং অনেক ভালো ভালো প্লেয়ার উঠে আসবে।

সালাউদ্দিন স্যার স্বভাবতই খুব সাদামাটা ধরণের। প্রতিটা ব্যাপার খুব আন্তরিকভাবে নেন। বাংলাদেশ ক্রিকেটে তার অবদান সম্পর্কে সবাই অবগত আছেন। উনার উপরোক্ত মন্তব্য পর্যালোচনা করলেই উপলব্ধি করা যায় উনার ক্রিকেটীয় ধ্যান-ধারণা ঠিক কতটুকু। এমন একজন ব্যক্তির সাথে কথা বলে অনেক ভালো লাগলো। সালাউদ্দিন স্যারের আগামীর দিনগুলোর জন্য শুভ কামনা রইলো নিউজক্রিকেট২৪ এর পক্ষ থেকে।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »