আয়কে উপেক্ষা করে বঙ্গবন্ধু বিপিএলে অনন্য সমারোহ!

নিউজ ক্রিকেট ২৪ ডেস্ক »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

‘২০১৯ বিপিএল, বিপিএলের ৭ম আসর, ফ্র‍্যাঞ্চাইজি বিহীন বিপিএল’ —নাম তিনটি কিছুটা ভিন্নধর্মী মনে হলেও একই সূত্রে গাঁথা। এ তিনটি নামের মধ্যে আপনি যে নামেই এবারের বিপিএলকে সম্বোধন করেন না কেনো, সেটা বঙ্গবন্ধু বিপিএলকেই নির্দেশ করবে। কেননা এবারের বিপিএলের নামটা যে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’ নামেই নির্ধারণ করা হয়েছে। এই ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’ নিয়ে আলোচনা তো আর কম হয়নি। নানারকম সিদ্ধান্তের কারণে আলোচিত-সমালোচিত হতে হয়েছে ক্রিকেট বোর্ডকে। তবুও যেনো এই আলোচনা-সমালোচনাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে বাংলাদেশ ক্রিকেটের উন্নতি সাধনে নিজেদের সিদ্ধান্তে অটল থাকছে বিসিবি।

এরই ধারাবাহিকতায় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি) বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের শততম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে, তার প্রতি সম্মান প্রদর্শনে এবারের বিপিএলের নাম নির্ধারণ করেছে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’। বঙ্গবন্ধুর নামে উৎসর্গ করায়, এ আসরের লভ্যাংশ নিয়ে ভাবছে না বিসিবি। বিসিবি চায় পূর্বে অনুষ্ঠিত হয়ে যাওয়া আসরগুলোর চাইতে এবারের আসরটি তুলনামূলক বেশি জাঁকজমকপূর্ণ করতে। আর এতে ব্যয়ের সাথে কোনোরকম আপোষ করতে নারাজ বিসিবি।

বঙ্গবন্ধু বিপিএলে বিশেষ সংস্করণ যুক্ত করার পরিকল্পনা পূর্ব নির্ধারিতই ছিলো বলে জানিয়েছে বিসিবির মিডিয়া কমিটির চেয়ারম্যান জালাল ইউনুস। তার ভাষ্যমতে, ‘বিপিএলের ৭ম আসরকে বঙ্গবন্ধুর নামে উৎসর্গ করা হচ্ছে। যার ফলশ্রুতিতে এর নাম দেওয়া হয়েছে ‘বঙ্গবন্ধু বিপিএল’। তাই এই আসরটিতে আমরা একটি ভিন্ন মাত্রা যোগ করতে চাচ্ছি। এতে আমাদের মুনাফা না হলেও ক্ষতি হওয়ার সম্ভাবনা খুব কম। কারণ স্পন্সর-পার্টনার যারা রয়েছে, তারা এখানে একটা অংশ বিনিয়োগ করবে।’

বিসিবি এবারের বিপিএল নিজেদের অর্থায়নে আয়োজন করেছে। ফলে কোনো ফ্র‍্যাঞ্চাইজিদের দেখা যাবে না। তাহলে কি আগামী বছর অর্থাৎ ৮ম আসরেও কি ফ্র‍্যাঞ্চাইজিরা বঞ্চিত হবে? এমন প্রশ্নের জবাবে জালাল ইউনুসের সোজা কথা,  ‘না না, ঠিক এমন কিছু নয়। আমরা আসলে এবারের আসরটি কিছুটা স্পেশাল করে আয়োজন করছি। আগামী বছর থেকে তাদেরকে পুনরায় দেখা যাবে। শুধুমাত্র ১ বছরের চুক্তিতেই স্পন্সর-পার্টনাররা আমাদের সাথে যুক্ত হচ্ছে। আগামী বছরে পুরোনো ফ্র‍্যাঞ্চাইজি গুলোই ব্যাক করবে।’

উল্লেখ্য, বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) জন্য বিসিবির গঠিত নিয়ম না মেনেই ফ্র‍্যাঞ্চাইজি গুলো তাদের খেয়াল-খুশি মতো ক্রিকেটার, দলে ভেড়ানোর কাজ শুরু করে এবং একই বছর দুইবার বিপিএল আয়োজন করা নিয়ে কয়েকটি ফ্র‍্যাঞ্চাইজি বিসিবির সাথে দ্বিমত পোষণ করে। ফলে ফ্র‍্যাঞ্চাইজি ছাড়াই বিপিএলের ৭ম আসর আয়োজন করার সিদ্ধান্ত নেয় বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড (বিসিবি)।

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »