fbpx

‘আমার মন ক্রিকেটের মধ্যে আর নেই’

https://scontent.fdac4-1.fna.fbcdn.net/v/t1.0-9/36386236_2027432020601594_1928619179817041920_n.jpg?_nc_cat=104&_nc_eui2=AeFY40879vpUlXD3TvLuwunYiYPt9keMWugjnmsYPL9A2_cQ-azY1GmWWQy36LFNFzNLAU2kdDYB9vV9Qwdjt7cfxuFbw0DGkcoiJ24B4pOm6Q&_nc_ht=scontent.fdac4-1.fna&oh=926e9b4229d9f6e3ffd66fe5510e3767&oe=5D672D33 »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

আফগান ক্রিকেটের উত্থান দিন দিন হচ্ছে এতে নেই কোনো সন্দেহ। যুদ্ধ বিদ্ধস্ত দেশটির ক্রিকেটের শুরুর পর্ব থেকেই আষ্টেপৃষ্টে জড়িয়ে ছিলেন ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ শাহাজাদ। তার ভয়ডরহীন ব্যাটিংই আফগান ব্যাটিং লাইনআপকে করেছে শক্তিশালী।

সেই শাহাজাদকেই নাকি জোর করে বাদ দেয়া হচ্ছে বিশ্বকাপ থেকে! এর আগে শাহাজাদের পক্ষ থেকে এমন অভিযোগের পর এবার সাংবাদিকদের সামনে জানালেন ক্রিকেটই ছেড়ে দিচ্ছেন তিনি!

শাহাজাদ বলেন, ‘লন্ডনে ডাক্তারের কাছে যাওয়ার পর তিনি আমার হাঁটুর ভেতর থেকে কিছু পানি বের করে দিয়ে বলেছেন দুই-তিন বিশ্রাম নিলেই আমি ক্রিকেট খেলতে পারবো।’

তাকে বাদ দেয়ার ঘটনার কথা জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমাদের প্র্যাকটিস সেশন ছিল ওইদিন। ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং সবই করা হয়েছিল সেখানে। লাঞ্চের সময় সতীর্থদের সাথে ফেরার সময় আমার মুঠোফোনে আইসিসির বিজ্ঞপ্তি দেখতে পাই। যেখানে বলা হয়েছে ফিটনেসের সমস্যা থাকায় আফগান স্কোয়াড থেকে বাদ দেয়া হয়েছে আমাকে। তখনই জানতে পারি আমি নাকি আনফিট।’

‘দলের ম্যানেজারকেও আমি জানিয়েছি। যিনি আমাকে প্রথমে ফোনটা বের করে বিজ্ঞপ্তিটা দেখতে বললেন তিনি সহ আমি দাক্তারের কাছে আবার যাই। ডাক্তার আমার দিকে চেয়ে বললেন ওনার কিছুই করার নেই।’

নিজের মনের ক্ষোভ উগড়ে দিয়ে শাহাজাদ জানালেন আর কখনোই ক্রিকেট খেলবেন না। ‘তারা যদি আমার সমস্যা দেখতো তাহলে জানাতো আমাকে! তারা না চাইলে ক্রিকেট ছেড়ে দিব আমি। নিজেকে আমি আর ক্রিকেটার হিসেবে দেখতে চাই না। বিশ্বকাপটা ছিল আমার স্বপ্ন। ২০১৫ বিশ্বকাপেও আমাকে ফিটনেসের অজুহাতে বাদ দেয়া হয়েছিল। আমি পরিবার ও বন্ধুদের সাথে আলোচনা করব। আমার মন ক্রিকেটের মধ্যে আর নেই।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »