আফিফ-সৌম্যকে দলে নেয়ার কারন ব্যাখ্যা করেছেন প্রধান নির্বাচক

মমিনুল ইসলাম »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

তিন ম্যাচের টি-টোয়েন্টি সিরিজের জন্য ১৫ সদস্যের দল ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ ক্রিকেট বোর্ড বিসিবি। তবে দল নির্বাচন দেখে দ্বিধায় ভুগছে দর্শকরা। ঘোষিত স্কোয়াডে রাখা হয়েছে ৫ ওপেনারকে। তবে প্রধান নির্বাচক জানিয়েছে সবাইকে ওপেনার হিসেবে দলে নেয়া হয়নি তাদের সবার আলাদা আলাদা দায়িত্বে আর আলাদা জায়গার জন্য নেয়া হয়েছে।

পাকিস্তানের টি-টোয়েন্টি সিরিজের ঘোষিত স্কোয়াডে দলের নিয়মিত ওপেনার তামিম ইকবালের সাথে রয়েছে লিটন কুমার দাস, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ নাইম শেখ ও নাজমুল হোসেন শান্ত। দলে পাঁচ ওপেনার দেখে ভড়কে গেছে অনেকেই। কারন পাঁচ জনই তো ওপেনার তাহলে তামিমের সাথে ইনিংসের গোড়াপত্তন করতে নামবে কে? তবে তামিমের সাথে সবার চেয়ে এগিয়ে থাকবেন লিটন দাস ও সৌম্য সরকার। কারন জাতীয় দলের অনেক ম্যাচেই ওপেন করেছেন। এছাড়া ভারত সফরে তামিমের অনুপস্থিতিতে আলো ছড়িয়েছেন নাইম শেখ সেই সাথে বিপিএলেও ওপেনার হিসেবে যেমন রান পেয়েছেন তেমনি প্রশংসাও কুড়িয়েছেন।

বিপিএলের শেষ দিকে খুলনা টাইগার্সের হয়ে দুর্দান্ত দুই ইনিংস খেলে শান্ত জায়গা করে নিয়েছেন পাকিস্তান সফরে। তবে দলে জায়গা পাওয়াটা একটু কঠিন। এবারের বিপিএলে সবচেয়ে সফল ওপেনার জুটি ছিলো লিটন-আফিফের। তাই তো ওপেনার হিসেবে আফিফও যোগ্য দাবিদার। তবে আফিফ সৌম্যের অবস্থান পরিষ্কার করেছেন প্রধান নির্বাচক। সৌম্য দলে খেলবেন অলরাউন্ডার হিসেবে আর শেষদিকে তাড়াতাড়ি রান তোলার দায়িত্বে থাকবে আফিফ হোসেন ধ্রুব।

প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু বলেন, ‘আফিফকে আমরা ওপেনার হিসেবে দলে নেইনি। ব্যাটসম্যান ও সাথে স্পিনার হিসেবে তাকে জায়গা দেয়া হয়েছে। সৌম্যেরও ওপেনার করার সম্ভাবনা নেই। সৌম্য দলে অলরাউন্ডার হিসেবে খেলবে। আর আমাদের প্রথম পছন্দের ব্যাটসম্যানরাই ইনিংসের গোড়াপত্তন করবেন।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »