আফগানদের বিপক্ষে জয়ের পথ বাতলে দিলেন অলক কাপালি

https://scontent.fdac4-1.fna.fbcdn.net/v/t1.0-9/36386236_2027432020601594_1928619179817041920_n.jpg?_nc_cat=104&_nc_eui2=AeFY40879vpUlXD3TvLuwunYiYPt9keMWugjnmsYPL9A2_cQ-azY1GmWWQy36LFNFzNLAU2kdDYB9vV9Qwdjt7cfxuFbw0DGkcoiJ24B4pOm6Q&_nc_ht=scontent.fdac4-1.fna&oh=926e9b4229d9f6e3ffd66fe5510e3767&oe=5D672D33 »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

এবারের বিশ্বকাপে বাংলাদেশ দলের শুরুটা হয়েছিল দুর্দান্ত। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে ব্যাটিং, বোলিং কিংবা ফিল্ডিং তিন বিভাগেই নিজেদের সেরাটা দিয়েছে টাইগাররা। সাফল্যও ধরা দিয়েছে যথাযথভাবে।

স্বল্প রান নিয়ে নিউজিল্যান্ডের বিপক্ষে লড়াই করার ক্ষেত্রেও বোলাররাই মূল অবদান রেখেছিলেন। টাইগার বোলারদের দুর্দশার চিত্র মূলত দেখা গিয়েছিল ইংল্যান্ড ও অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ম্যাচে। মুস্তাফিজ, সাইফউদ্দিন, সাকিব অথবা মিরাজ যাদের কথাই বলা হোক না কেন কেমন জানি খাপছাড়া ভাব রয়ে গিয়েছিল বোলিং বিভাগে।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে সোমবার মাঠে নামছে টাইগাররা। শক্তির বিচারে বাংলাদেশ দল আফগানিস্তানের বিপক্ষে এগিয়ে থাকলেও তাদের বিপক্ষেও নেয়া যাবে না কোনো প্রকার ঝুঁকি। পাশাপাশি বোলারদের মধ্যে দায়িত্বটা থাকবে সাকিব-মিরাজদের কাঁধেই।

নিউজক্রিকেট২৪.কম’কে দেয়া একান্ত সাক্ষাৎকারে অলক কাপালি বলেন আফগানদের বিপক্ষে বাংলাদেশ দলের বোলিং বিভাগের দায়িত্বটা নিতে হবে সাকিব-মিরাজদের। বোলিং বিভাগের উন্নতি করা প্রসঙ্গে কাপালির ভাষ্য, ‘উন্নতি বলতে যতটুকু লাইন-লেন্থ ঠিক রেখে বল করা যায় আরকি। যেমনটা আপনি দেখেন ইংল্যান্ডের বিপক্ষে মালিঙ্গা করেছে। তবে সবাই যে ভালো বোলিং করতে তা কিন্তু না। সবাই রান দিচ্ছে। আমাদেরও যে খারাপ বোলিং হচ্ছে তা কিন্তু না। আমাদের যারা স্পিন বিভাগে আছে যেমন সাকিব- মিরাজ তাদের কিন্তু দায়িত্ব নিয়ে বোলিং করতে হবে। তারা যদি একেকজন ৪০-৪৫ রান করে দেয় তাহলে কিন্তু রানটা কমে আসবে। আর রুবেলের ব্যাপারে বলবো ওইদিন (অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে) তার প্রথম ম্যাচ ছিল তাই হয়তো একটু খারাপ করেছে। আফগানিস্তানের তারা যে পেস বল খুব বেশি ভালো খেলে এমন কিন্তু না। তারা সবসময় স্পিন খেলেই অভ্যস্ত। সার্বিক দিক হিসেব করলে আমি বলবো যে লাইন-লেন্থ ঠিক রেখে বল করতে পারলে ভালো করা সম্ভব।’

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশ দল বিশাল লক্ষ্য তারা করে জয়ের দেখা না পেলেও লড়াই করে গেছে শেষ পর্যন্ত। মুশফিকের অপরাজিত সেঞ্চুরির সাথে মাহমুদউল্লাহর ভয়ডরহীন ব্যাটিং সবই ছিল ওই ম্যাচের প্রাপ্তি। তাছাড়া তামিমের রানে ফেরাও বাড়তি স্বস্তি দিচ্ছে টাইগারদের।

আফগানিস্তানের বিপক্ষে ম্যাচে বাংলাদেশ দলের ব্যাটিং বিভাগের উন্নতি কতটা প্রয়োজন? বা উন্নতির জায়গা কোথায় রয়েছে? এমন প্রশ্নের জবাবে নিউজক্রিকেট২৪.কম’কে কাপালি বলেন, ‘আমি মনে করি বর্তমান যে টিম খেলছে সেখানে কিন্তু সাব্বির রহমান ছাড়া বাকিরা ভালো করেছে। সে (সাব্বির) প্রথম বলে আউট হয়ে গেছে। এমনটা আসলে হতেই পারে। বাকিরা কিন্তু ভালো করছে। সৌম্য শুরুটা কিন্তু ভালো করছে। শুরুটা ভালো করতে পারলে নিচে যারা আছে যেমন সাকিব, মুশফিক, মাহমুদউল্লাহ, মোসাদ্দেক তারা এমনিতেই ভালো করবে। আমার মনে হয় আমাদের শুরু থেকে সাত পর্যন্ত সবাই দুর্দান্ত ফর্মে আছে। আমার মনে হয় যদি প্রতিপক্ষ দল ৩৩০-৪০ হয় তাও চেজ করা সম্ভব।’

টাইগারদের ব্যাটিং অর্ডার যথেষ্ট ভালো দাবি করে তিনি আরও বলেন, ‘সাকিব প্রতিটা ম্যাচে যেভাবে খেলতেছে প্রতিটা ম্যাচেই কিন্তু তার রান ভালো। তামিম রানে ফিরেছে, মুশফিক সেঞ্চুরি করেছে এসব কিছু বিবেচনা করলে আমাদের ব্যাটিং অর্ডার খুবই ভালো।’

ম্যাচ জয়ের মন্ত্র হিসেবে কাপালি যোগ করেন, ‘ম্যাচ জিততে হলে আমাদের দুইটা বোলারকে ৪০-৪৫ রান দিতে হবে (সাকিব-মিরাজ)। তাহলে কিন্তু এমনিতেই রানটা অনেক কমে আসবে। এমন হলে কখনোই রান ৩৮০ হবে না। হয়তো ৩২০ কিংবা ৩৩০ হতে পারে। মাঝখানের ওভারগুলোতে যত কম রান দেয়া যায় ততই ভালো হবে তো নেক্সট ম্যাচে (আফগানিস্তানের বিপক্ষে) আমাদের দুইটা বোলার যদি ৪০-৪৫ রান খরচ করে তাহলে সেটাই ম্যাচে পার্থক্য করে দিবে।’

বাংলাদেশ দলের ফিল্ডিং নিয়ে তার ভাষ্য, ‘লাস্ট একটা বা দুইটা ম্যাচ বাদ দিলে কিন্তু সব মিলিয়ে আমরা ফিল্ডিংটা ভালো করেছি। আমাদের অনেক ভালো ভালো ফিল্ডার রয়েছে। আসলে খারাপ হয়ে যায়। এমনটা হয়, সব দলেই হয়। এটা তেমন কোনো সমস্যা নয়।’

বাংলাদেশ দল যদি আফগানিস্তানের বিপক্ষে প্রথমে ব্যাটিং করলে বাংলাদেশ দলের জন্য নিরাপদ স্কোর কত হতে পারে? নিউজক্রিকেট২৪.কম এর এমন প্রশ্নের জবাবে সহজ ভাষায় কাপালি বলে দিলেন, ‘আজকের যে উইকেটে খেলা হচ্ছে (আফগানিস্তান-ভারত ম্যাচ) এখানে আসলে ২৬০+ নিরাপদ স্কোর বলে মনে হয় আমার কাছে।’

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »