অন্য প্লেয়ারদের সাথে তামিমের তুলনায় আপত্তি সালাউদ্দীনের

কে এম আবু হুরায়রা »

  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  

সদ্যই শেষ হয়েছে পাকিস্তানের বিপক্ষে ৩ ম্যাচের টি২০ সিরিজ। গতকাল রাতে দেশে ফিরেছে দল। আগেই শুরু হয়েছে টেস্টের প্রস্তুতি। তবে দলের করুন দশা’কে ছাপিয়ে আলোচনা – সমালোচনার কেন্দ্রবিন্দু যেনই তামিম ইকবাল। রান করা নিয়ে কোন আক্ষেপ নেই কারও। তবে সবার চাওয়া একটু দ্রুত রান তোলা। পাওয়ার প্লে কাজে লাগানো। সেখানেই বরাবরের মতই ব্যার্থ তিনি।

সমালোচকদের মত একটু দ্রুত ব্যাটিং করার পরামর্শ দিয়েছেন কোচ সালাহউদ্দীনও। টি২০ ক্রিকেটে তামিমের থেকে বেশী আক্রমণাত্মক খেলতে পারা ব্যাটসম্যানও নেই পাইপ লাইনে৷ সালাউদ্দিন বলেন,” এটা (টি২০) যে খুব বেশী মারধরের খেলা তা কিন্তু না৷ হয়তো ১টা বাউন্ডারি বেশী লাগবে বা দুটা বাউন্ডারি বেশী লাগবে পাওয়ার প্লেতে। আর সেটা তামিমের থেকে বেশী কেউ মনে হয়না মারতে পারে৷ “

তবে স্ট্রাইক রেট তামিমের কিছুটা কম স্বীকার করে সালাউদ্দীন আমাদের দলের দৈন দশার কথাও স্বরন করিয়ে দিলেন। তামিমকে নিয়ে যতই সমালোচনা হোক না কেনো অন্যদেরও আহামরি কিছু নয়। সবারই ১২০-১২৫ স্ট্রাইকরেট। সালাউদ্দীন বলেন,” স্ট্রাইক রেট নিয়ে অন্য প্লেয়ারদের সাথে তুলনা করলে আমার আপত্তি আছে৷ খুব একটা যে বেশি হেরফের তাও কিন্তু না। “

ম্যানেজমেন্টের কি ভূমিকা থাকতে পারে এ নিয়েও কথা বলেছেন সালাউদ্দীন। কাউকে বাদ দিয়ে দেওয়া কারওই কাম্য নয়। বেটার কিছু পেতে যা করা উচিৎ সেটাই করার পরামর্শ এই গুরুর। সালাউদ্দীনের ভাষায়, ” ম্যানেজমেন্টের কাজ অন্য কিছু না, কারও স্ট্রাইক রেট ভালো তাকে নিলাম৷ কারও ভালো না ছেড়ে দিলাম৷ ম্যানেজমেন্টের কাজ হচ্ছে কার থেকে একটা বেটার রেজাল্ট আশা করতে পারি৷ কোচদের সাথে বসা৷ বসে বলা যে তোমার এই যায়গাটা যদি একটু বেটার হয় তা টিমের জন্য ভালো।”

  •  
  •  
  •  
  • 0
  •  
  •  
  •   
নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »