পাকিস্তানের হয়ে খেলতে না পারায় হতাশ তাহির!

নিউজ ক্রিকেট ২৪ ডেস্ক »

ইমরান তাহির বর্তমানে দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় দলের একজন ক্রিকেটার। টেস্ট-ওয়ানডে থেকে অবসর নিয়েছেন কিছুদিন আগেই। তার জন্ম পাকিস্তানে হলেও তিনি পাকিস্তান জাতীয় দলের হয়ে খেলতে পারেননি।জন্মভূমির হয়ে খেলার সুযোগ না হওয়ায় একটা আক্ষেপটা সবসময় কাজ করে এই ক্রিকেটারের মধ্যে।

পাকিস্তানে তিনি ঘরোয়া লিগ খেলেছেন অনেক বছর। প্রত্যাশা অনুযায়ী পারফরম্যান্স না থাকায় জাতীয় দলের জন্য কখনো বিবেচনায় আসতে পারেননি। যদিও পাকিস্তান অনূর্ধ্ব-১৯ ও এ দলের হয়ে খেলার সুযোগ হয়েছিল এই ক্রিকেটারের।পাকিস্তানে ওইভাবে সুযোগ না হওয়ায় ২০০৫ সালে ২৬ বছর বয়সে দক্ষিণ আফ্রিকান এক নারীকে বিয়ে করে পাড়ি জমান দক্ষিণ আফ্রিকায়।

দক্ষিণ আফ্রিকার কন্যা সুমাইয়া দিলদারকে বিয়ে করে তিনি দক্ষিণ আফ্রিকার নাগরিকত্ব পেয়ে যান। ফলে সেদেশের একদম স্থায়ী বাসিন্দা হয়ে যান। এরপর দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া লিগ দিয়ে এইদেশে ক্রিকেট সাধনা শুরু করেন। পাকিস্তানে নিজেকে প্রমাণ করতে ব্যর্থ হলেও দক্ষিণ আফ্রিকার ঘরোয়া লিগে নিয়মিত পারফর্ম করে ২০০৯ সালে সুযোগ পান দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় দলে।

প্রায় ১০ বছরের বেশি দক্ষিণ আফ্রিকা জাতীয় দলের হয়ে খেললেও পাকিস্তানের হয়ে খেলতে না পারার কারনে তিনি এখনো হতাশায় ভোগেন।

দেশের হয়ে খেলতে না পারার ব্যাপারে নিজের অনুভুতি জানাতে গিয়ে তিনি বলেন,” আমি আমার জন্মস্থান লাহোরে ক্রিকেট খেলতাম। আমার বেশিরভাগ সময় আমি পাকিস্তানে খেলেছি। কিন্তু সেখানে পর্যাপ্ত সুযোগ পাইনি। পাকিস্তানের হয়ে খেলার সেই সোভাগ্যটা হয়নি। আমার ভাগ্যে হয়তো দক্ষিণ আফ্রিকা ছিলো।এখানে খেলতে বড় একটা ভূমিকা রেখেছে আমার স্ত্রী।

উল্লেখ্য, দক্ষিণ আফ্রিকার হয়ে তাহির ২০ টেষ্ট,১০৭ ওয়ানডে ও ৩৮ টি-টোয়েন্টি খেলেন।

নিউজক্রিকেট/আরআর

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »