জীবনের সবথেকে বড় ভুলের কথা জানালেন বিজয়

নিউজ ডেস্ক »

বেশ লম্বা ক্রিকেট ক্যারিয়ার এনামুল হক বিজয়ের। ১৬ বছর বয়সেই প্রথম শ্রেনীর ক্রিকেটে অভিষেক হয় এই তার। এর পরে জাতীয় দলে হয়ে নিয়মিত খেললেও হঠাৎই ইঞ্জুরির কারণে দল থেকে ছিটকে পরেন তিনি। তবে নিজের পারফরম্যান্স ঠিক রেখে ৩ বছর পর জাতীয় দলে ফিরে আবারও দলের বাইরে চলে যান এই ওপেনার।

ভুল কি ছিলো? কেনো হঠাৎই ছন্দপতন। দ্বিতীয় দফায় জাতীয় দলে ফেরার আগেও ঘরোয়া ক্রিকেটে দুর্দান্ত পারফর্ম করেও জাতীয় দলে এসে ছন্দপতন কেনো? জীবনের সবথেকে বড় ভুল কি ছিলো? একটি লাইভ আড্ডায় এক দর্শকের এই প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন এনামুল হক বিজয়।

নিজের ভুল সম্পর্কে এনামুল হক বিজয় বলেন, ‘ভুল হলো মানসিকতা। আমার আরও ভালো মানসিকতা হতে পারতো। যে সময় আমি আসলে গুরুতর ভাবে চিন্তা করেছি যে আমাকে খেলতেই হবে। এই গুরুতর জিনিটা আসলে ভালো না। এটা আমার চিন্তা ভাবনায় ভুল ছিলো। উন্নতির যায়গা থাকলে উন্নতি করা। কিন্তু গুরুতর হওয়া যাবেনা। আমার মনেহয় এই মানসিকতায় আমার একটা ভুল ছিলো।’

এছাড়াও নিজের জীবনের অনেক কঠিন সব সিদ্ধান্ত নিয়েছিলেন তিনি। পাকিস্তানে পিএসএল এর ফাইনালে খেলতে যাওয়ার মত সিদ্ধান্তটিও ছিলো শুধুমাত্র জাতীয় দলে ডাক পাওয়ার জন্য।

এদিকে বয়স ভিত্তিক দলের কোচ মিজানুর রহমান বাবুলও এনামুল হক বিজয়কে নিজের আবেগকে নিয়ন্ত্রণ করতে বলেছেন। কারণ আবেগের বশবর্তী হয়ে অনেক সেলিব্রেশনের কারণে খেলা থেকে মনযোগ দূরে চলে যায়। এসময় তিনি সাকিব আল হাসানের উদাহরণ দিয়ে বলেন, ‘বিজয়কে উপদেশ হিসেবে বলি। ও একজন আবেগপ্রবণ ছেলে। ওর আবেগটা খেলার ভিতরেও খুব ডিস্টার্ব করে। যেমন বিজয় সেঞ্চুরি করলে ওর সেলিব্রেশনটা অনেক বেশী হয়ে যায়৷ এতো সেলিব্রেশনের জন্য ও খেলার ভিতর থেকে বের হয়ে যায়। যেমন সাকিব, ১০০ কেনো ২০০ করলেও ওর সেলিব্রেশন হচ্ছে হ্যা ঠিক আছে এমন। এই জিনিসটাকে নিয়ন্ত্রণ করতে হবে যাতে তোমার খেলায় প্রভাব না পরে।’

নিউজ ক্রিকেট ২৪ / কেএমএএইচ

নিউজটি বন্ধুদের সাথে শেয়ার করুন »

মন্তব্য করুন »